• বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৪৪ রাত

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

  • প্রকাশিত ০১:০৩ দুপুর সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯
বন্দুকযুদ্ধ
প্রতীকী ছবি

পুলিশ জানায়, নিহত হাবিব উল্লাহ একজন চিহ্নিত ডাকাত। তার বিরুদ্ধে ৬টির বেশি মামলা রয়েছে

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে হাবিব উল্লাহ (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছেন। এঘটনায় আহত হয়েছে পুলিশের ২ সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে ২ টি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১২ টার দিকে টেকনাফের নয়াপাড়ার মোচনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে এঘটনা ঘটে। নিহত হাবিব উল্লাহ মোচনী ক্যাম্পের আলী আহমদের পুত্র।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, শনিবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে জাদিমোরা শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের পাহাড়ে ডাকাতের প্রস্তুতির খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ডাকাতদল গুলি করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। তবে ঘটনাস্থল থেকে হাবিব উল্লাহকে আটক করা হয়। 

পরে তার দেওয়া স্বীকারোক্তি মতে রাত সাড়ে ১২ টায় নয়াপাড়া মোচনী ক্যাম্পের পাশের পাহাড়ে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধারে যায়। ওখানে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে দ্বিতীয় দফায় গুলি করে। এতে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এসময় পুলিশের এসআই সুজিত দে, এসআই মশিউর আহত হন। গুলিবিদ্ধ হন হাবিব উল্লাহ। এদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান শেষে হাবিব উল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হলে ওখানে তার মৃত্যু হয়। 

ওসি জানান, নিহত হাবিব উল্লাহ একজন চিহ্নিত ডাকাত। তার বিরুদ্ধে ৬টির বেশি মামলা রয়েছে।