• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৮ সকাল

কুমিল্লার আদালতে ছুরি নিয়ে প্রবেশের সময় নারী আটক

  • প্রকাশিত ০৬:২৮ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯
গ্রেপ্তার
প্রতীকী ছবি

জুলাইয়ে কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক বেগম ফাতেমা ফেরদৌসের খাস কামারায় ঢুকে ফারুক নামের এক আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করেন হাসান নামের আরেক আসামি।

কুমিল্লার আদালতে প্রবেশের সময় ছুরিসহ রোজিনা নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিয়ের কাবিন সংগ্রহের জন্য ওই নারী আদালতে প্রবেশের সময় পুলিশ তার ভ্যানিটি ব্যাগ তল্লাশি করে ছুরিটি উদ্ধার করে। 

আটককৃত ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার (এসপি) সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি কুমিল্লার আদালতে একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশ আদালতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে। এরই অংশ হিসেবে আজ আদালতে প্রবেশকালে তল্লাশি চালিয়ে ওই নারীর ব্যাগে একটি ছুরি পেয়ে তাকে আটক করা হয়। ওই নারী কোনো অপরাধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত কিনা তা জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে। 

উল্লেখ, চলতি বছরের জুলাইয়ে কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক বেগম ফাতেমা ফেরদৌসের আদালতে বিচারকের খাস কামারায় ঢুকে ফারুক নামের এক আসামিকে টেবিলের ওপর শুইয়ে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন হাসান নামের আরেক আসামি। হাসান হত্যার পরিকল্পনা নিয়ে ছুরি নিয়ে আদালতে প্রবেশ করে জানা যায়।