• রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৩ রাত

ডাকসু থেকে রাব্বানীকে বহিষ্কারের দাবি

  • প্রকাশিত ০৩:৪৪ বিকেল সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
প্রগতিশীল ছাত্রজোট
সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে ডাকসু থেকে গোলাম রাব্বানীকে বহিষ্কারের দাবি জানায় প্রগতিশীল ছাত্রজোট। ফোকাস বাংলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘দুর্নীতি’র বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকেও সমর্থন জানিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট

দুর্নীতি, চাঁদাবাজিসহ নৈতিক স্খলনের দায়ে ছাত্রলীগের সদ্য পদচ্যুত সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে ডাকসুর জিএস পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট। একইসঙ্গে বিগত ডাকসু নির্বাচনকে অবৈধ ঘোষণা করে পুনঃনির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন জোটের নেতৃবৃন্দ।

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের পক্ষ থেকে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল এ দাবি জানান।

রাব্বানীকে উদ্দেশ্য করে লিখিত বক্তব্যে নোবেল বলেন, দুনীর্তির অভিযোগ মাথায় নিয়ে নিজ সংগঠন থেকে অব্যাহতি পাওয়া কোনো ব্যক্তির ডাকসুর পদে থাকার যোগ্যতা নেই।

বিগত ডাকসু নির্বাচনকে ‘জালিয়াতির নির্বাচন’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, “ডাকসুর ভূমিকাকে অতীতের মতো আবার সামনে নিয়ে আসাতে পুনরায় ডাকসু নির্বাচন হওয়া উচিত বলে আমরা মনে করি।”

সংবাদ সম্মেলন থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘দুর্নীতি’র বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকেও সমর্থন জানায় প্রগতিশীল ছাত্রজোট।

সংবাদ সম্মেলনে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি ইমরান হাবিব রুমন, সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবির প্রমুখ।