• বুধবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

ফুটবল মাঠে ‘উচ্ছৃঙ্খল দর্শকের’ হামলায় পুলিশ সদস্যসহ আহত ১০

  • প্রকাশিত ০৮:৩১ রাত সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
নড়াইল ফুটবল
সোমবার নড়াইলের লোহাগড়ায় ফুটবল মাঠে দর্শকদের হামলায় আহত পুলিশ সদস্য ঢাকা ট্রিবিউন

বদলি খেলোয়াড় মাঠে নামানোকে কেন্দ্র করে দুই দলের সমর্থকদের মাঝে বাক-বিতণ্ডা শুরু হয়

নড়াইলের লোহাগড়ায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনূর্ধ্ব-১৭ ফাইনাল খেলাকে কেন্দ্র করে ‘উচ্ছৃঙ্খল দর্শকদের’ হামলায় তিন পুলিশ সদস্যসহ ১০জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জয়নুল আবেদীনও রয়েছেন

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় লোহাগড়ার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ঘটনাটি ঘটে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় স্থানীয় একটি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল অহেদ শেখকে আটক করেছে পুলিশ। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুকুল কুমার মৈত্র সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, এদিন বিকেল সাড়ে ৪টায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনূর্ধ্ব-১৭'র ফাইনালে মাঠে নেমেছিল কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদ ফুটবল একাদশ ও নলদী ইউনিয়ন পরিষদ ফুটবল একাদশ। খেলার দ্বিতীয়ার্ধে বদলি খেলোয়াড় মাঠে নামানোকে কেন্দ্র করে দুইদলের সমর্থকদের মাঝে বাক-বিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে কাশিপুরের দর্শকরা প্রতিপক্ষ নলদীর দর্শকদের ওপর তিন দফা হামলা চালায়। 

এমন পরিস্থিতিতে লোহাগড়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম এম আরাফাত হোসেন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করতে লাঠিচার্জ করলে কাশিপুর ইউনিয়নের দর্শকদের হামলায় এসআই জয়নাল আবেদীনসহ কয়েকজন পুলিশ কনস্টেবল আহত হন। খবর পেয়ে লোহাগড়া থানা থেকে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে উচ্ছৃঙ্খল দর্শকদের ধাওয়া করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোকাররম হোসেন জানান, “খেলার মাঠে দু’পক্ষের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে এস আই জয়নুল আবেদীন সামান্য আহত হয়েছে।” তবে কাউকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করেননি তিনি।