• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৪ দুপুর

নানা-নানিকে অচেতন করে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

  • প্রকাশিত ১১:৪১ সকাল সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণ ও মুঠোফোনে ছবি তোলার কথা স্বীকার করেছেন আশফাকুল

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে কোমল পানীয় পান করিয়ে অচেতনের পর ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় আশফাকুল রহমান  (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ ও ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, রোববার সন্ধ্যায় নানাবাড়িতে বেড়াতে যায় ওই ছাত্রী। রাত ৮টার দিকে বাসার ভাড়াটে আশফাকুল কোমল পানীয় এনে ছাত্রী ও তার নানা-নানিকে দেন। কোমল পানীয় পান করার কিছুক্ষণ পর সবাই অচেতন হয়ে পড়ে। পরে গভীর রাতে ঘরে ঢুকে আশফাকুল মোবাইল ফোনে ওই স্কুলছাত্রীর আপত্তিকর ছবি তোলেন ও ধর্ষণ করেন।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঈন উদ্দিন আহমেদ ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, সোমবার রাতে ওই ছাত্রীর মামা বাদী হয়ে আশফাকুলকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। এর আগে আশফাকুলকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। 

ওসি আরও জানান,  প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণ ও মুঠোফোনে ছবি তোলার কথা স্বীকার করেছেন আশফাকুল। তার মুঠোফোনটি আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়েছে। মঙ্গলবার ( ২৪ সেপ্টেম্বর) তাকে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে হাজির করা হবে। 

সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুদ্দিন বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই স্কুলছাত্রীকে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তার জবানবন্দি রেকর্ড করার প্রক্রিয়া চলছে।