• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৬ রাত

রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কার্যক্রম নিয়ে অনিশ্চয়তা

  • প্রকাশিত ১০:৩২ রাত সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৯
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) থেকে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করা যাবে বলে মঙ্গলবার একটি জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ

তীব্র বাক-বিতণ্ডা ও মতানৈক্যের কারণে স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষ ভর্তি কমিটির সভা। ফলে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের বিষয়টি হয়ে পড়েছে অনিশ্চিত। বুধবার থেকে ভর্তি ভর্তিচ্ছুদের কাছ থেকে আবেদনপত্র চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডক্টর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর সভাপতিত্বে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি কমিটির দ্বিতীয় সভা আহ্বান করা হয়েছিল।

সভা সূত্র জানিয়েছে, ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়ার বিষয়টি আলোচনায় এলে সদস্যরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েন। ভর্তি কমিটির একটি পক্ষ সারাদেশের অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো রাষ্ট্রায়ত্ত্ব মুঠোফোন নেটওয়ার্ক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান টেলিটকের মাধ্যমেই ভর্তি আবেদন সম্পন্নের পক্ষে মত দেন। কিন্তু উপাচার্যের নেতৃত্বে অন্য অংশটি এর বিরোধিতা করে ‘অন্যরকম সফটওয়্যার লিমিটেড’ নামে একটি বেসরকারি সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠানকে মুঠোফোনে ভর্তি আবেদনে প্রক্রিয়ার দায়িত্ব দেওয়ার পক্ষে অবস্থান নেয়।

সভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যরা টেলিটকের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্নের পক্ষে মত দিলে উপাচার্য সভা মুলতবি ঘোষণা করেন।

ভর্তি কমিটির বেশ কয়েকজন সদস্যের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ভর্তি প্রক্রিয়া। এটি কোনোভাবেই একটি অখ্যাত বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের হাতে ছেড়ে দেওয়া যায় না। পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকা সত্ত্বেও উপাচার্য ঠিক কী কারণে ওই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়া চালাতে চাইছেন সেটা বোধগম্য নয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভর্তি কমিটির কয়েকজন সদস্য ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়া টেলিটকের মাধ্যমে করা হয়। রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়েও এতোদিন টেলিটকের মাধ্যমেই এ প্রক্রিয়া চলে আসছিলো। মোটা অংকের কমিশনের জন্যই একটি সিন্ডিকেট এমন চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

উল্লেখ্য, বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) থেকে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করা যাবে বলে মঙ্গলবার একটি জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ভর্তি কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বলেন, সবায় কোনো বাক-বিতণ্ডার ঘটনা ঘটেনি। কমিটির কিছু কাজ অসম্পূর্ণ থাকায় আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর পুনরায় ভর্তি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে এবং সেখানে আবেদন প্রক্রিয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তবে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব প্রতিষ্ঠান টেলিটককে বাদ দিয়ে অখ্যাত বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়ার দায়িত্ব দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।