• শনিবার, জুন ০৬, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:১৯ দুপুর

গোপালগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে আরও এক সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ

  • প্রকাশিত ০৩:১০ বিকেল সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯
ড. তারিকুল
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ড. মো. তরিকুল ইসলাম ঢাকা ট্রিবিউন

এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির তিন সহকারী প্রক্টর প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করলেন

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েরসহকারী প্রক্টর ড. মো. তরিকুল ইসলাম পদত্যাগ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. নূরউদ্দীন আহমেদের  কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন ড. তারিকুল। তার পদত্যাগপত্র গ্রহন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির তিন সহকারী প্রক্টর প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করলেন।

ড. মো. তরিকুল ইসলাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির ছাত্র উপদেষ্টা এবং ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ।

পদত্যাগপত্রে তিনি বলেন, “আমি প্রক্টরাল বডিতে ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির দায়িত্ব পালন করছিলাম।সম্প্রতি  প্রশাসন বিরোধী অহিংস আন্দোলনের সময় শিক্ষার্থীদের উপর বহিরাগত সন্ত্রাসীদের হামলায় ২০ জনেরও বেশি ছাত্র আহত হয়। এর মধ্যে আমার বিভাগের দু’ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে জানাচ্ছি যে, অহিংস আন্দোলনের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার কার্যকারী পদক্ষেপ নেয়নি। বরং ছাত্রদের ওপর বহিরাগত সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। একই অভিযোগে আমার সহকর্মী ও সহকারী প্রক্টর সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. হুমায়ুন কবির পদত্যাগ করেছেন। তারপর আমি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিধানের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের অপেক্ষায় থাকি। এরপর জানতে পারে ন্যাক্কারজনক হামলার পরেও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো মামলা করেনি। এমনকি ক্যাম্পাসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। যা অত্যন্ত দু:খজনক। আমার সন্তানতুল্য শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্বে অবহেলার প্রতিবাদে আমি প্রশাসনিক পদ থেকে পদত্যাগ করছি।”


আরও পড়ুন- গোপালগঞ্জ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ


পদত্যাগের বিষয়েড. তরিকুল ইসলাম বলেন, “যে প্রশাসন আমার শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দিতে পারে না, সেই প্রশাসনে আমি থাকতে চাই না। সে কারণেই পদত্যাগ করেছি।”

প্রসঙ্গত, বুধবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক সহকারী প্রক্টর ও কৃষি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. নাজমুল হক শাহিন ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেন। এর আগে গত ২১ সেপ্টেম্বর সহকারী প্রক্টর ও সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. হুমায়ূন কবির নিরীহ শিক্ষার্থীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে পদত্যাগ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. নূরউদ্দিন আহমেদ বলেন, “ড. তরিকুলের পদত্যাগপত্রটি আমি গ্রহণ করেছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।” শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অবহেলা ও সন্ত্রাসী লেলিয়ে দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে বিষয়টি এড়িয়ে যান রেজিস্ট্রার।

52
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail