• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৮ রাত

ক্যাসিনো ব্যবসায়ীদের দেশত্যাগ ঠেকাতে বেনাপোলে সর্বোচ্চ সতর্কতা

  • প্রকাশিত ০৬:০৪ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৯
বেনাপোল বন্দর
বেনাপোল বন্দর। ফাইল ছবি।

দেশজুড়ে জুয়া ও মাদকের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আসামিদের দেশত্যাগ ঠেকাতে বেনাপোল সীমান্তসহ পুলিশ ইমিগ্রেশনে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে সতর্কতার বিষয়টি বেনাপোল ইমিগ্রেশন ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে।

ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিন খান জানান, ঢাকা পুলিশের এসবি (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) থেকে তাদের কাছে একটি নির্দেশনা এসেছে। যুবলীগের ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও নয় নেপালের নাগরিক যাতে কোনোভাবেই দেশ ত্যাগ করতে না পারেন সেজন্য বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া প্রতিদিন নতুন নতুন আরও নামের তালিকা আসছে।

তিনি আরও জানান, যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় বেনাপোল ইমিগ্রেশন ও সীমান্ত পথে বিভিন্ন কৌশলে তারা ভারতে পালিয়ে যেতে পারে। ফলে সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্কতা ও পুলিশ ইমিগ্রেশনে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

বিজিবি ৪৯ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সেলিম রেজা ও ২১ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার জানান, রাষ্ট্র ঘোষিত অপরাধীরা যাতে কোনোভাবেই সীমান্ত পথে অবৈধভাবে ভারতে পালাতে না পারেন সে সীমান্ত এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দেশজুড়ে জুয়া ও মাদকের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ বিষয়ে শুক্রবার বলেন, "ক্যাসিনোর টাকার ভাগ যারা পেয়েছে; তারা আওয়ামী লীগ কিংবা অন্য দলের অথবা পুলিশ প্রশাসনের হলেও ছাড় দেওয়া হবে না।"

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান আওয়ামী লীগ নিজেদের ঘর থেকে শুরু করেছে জানিয়ে কাদের বলেন, এর সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের কাউকে ছাড় না দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।