• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৭ দুপুর

রাজশাহীতে কলেজছাত্রীর মৃত্যুতে স্বামী গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ১১:৪৪ সকাল অক্টোবর ৪, ২০১৯
লিজা
কলেজছাত্রী লিজা রহমানের (১৮) মৃত্যুর ঘটনায় তার স্বামী সাখাওয়াত হোসেন গ্রেফতার ঢাকা ট্রিবিউন

বৃহস্পতিবার রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে লিজার স্বামীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। সেইসাথে অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে বলে জানায় পুলিশ

রাজশাহীতে থানা থেকে বাইরে বেরিয়ে প্রকাশ্যে কেরোসিন ঢেলে নিজের গায়ে আগুন দেওয়া কলেজছাত্রী লিজা রহমানের (১৮) মৃত্যুর ঘটনায় তার স্বামী সাখাওয়াত হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ পরিচালক গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে লিজার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেইসাথে অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি আরও জানান, লিজার বাবা আলম মিয়া বাদী হয়ে বুধবার রাতে নগরীর শাহমখদুম থানায় আত্মহত্যার প্ররোচণার মামলা দায়ের করেন।

মামলা আসামিরা হলেন, লিজার স্বামী সাখাওয়াত হোসেন, শ্বশুর মাহবুব আলম খোকন ও শাশুড়ি নাজনিন বেগম। এছাড়াও সংখ্যা উল্লেখ না করে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে।

নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পুলিশ অভ্যন্তরীণ তদন্ত কমিটি গঠন করেছে উল্লেখ করে গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, তদন্ত প্রতিবেদন এখনও পাওয়া যায়নি। তদন্ত প্রতিবেদনে পুলিশের কারও কোনো অবহেলা পাওয়া গেলে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও পড়ুন: থানায় অভিযোগ করার পর গায়ে আগুন দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা


উল্লেখ্য, গত শনিবার দুপুরে অভিযোগ করতে গিয়ে নাম এন্ট্রির পর বের হয়ে নগরীর শাহ মখদুম থানা থেকে ১০০ গজ দূরে ওই ছাত্রী গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে বলা হলে ওইদিন বিকেলে তাকে রাজশাহী থেকে ঢাকায় নেওয়া হয়। 

এরপর বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অগ্নিদগ্ধ লিজা মারা যান।