• শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩২ রাত

আবরার হত্যাকাণ্ড : রিমান্ডে ১০ আসামি

  • প্রকাশিত ০৪:০৩ বিকেল অক্টোবর ৮, ২০১৯
আবরার ফাহাদ হত্যা
আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার ১০ আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে মঙ্গলবার আদালতে হাজির করে পুলিশ। মাহমুদ হোসেন অপু/ঢাকা ট্রিবিউন

সোমবার ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার ১০ আসামির পাঁচ দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) চেয়ে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম সাব্বির ইয়াসির আহসান চৌধুরী এ রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন। 

এর আগে ১০ আসামির ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।চকবাজার থানার তদন্ত কর্মকর্তা কবির হোসেন এ রিমান্ড আবেদন করেন।  

রোববার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে আবরারের মরদেহ উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরে সোমবার ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। আসামিদের মধ্যে ১০ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

আবরার হত্যার ঘটনায় গতকাল বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ হোসেন, ছাত্রলীগের নেতা অনীক সরকার, মেফতাহুল ইসলাম, ইফতি মোশারেফ, বুয়েট ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন, গ্রন্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক ইশতিয়াক আহমেদ মুন্না, ছাত্রলীগের সদস্য মুনতাসির আল জেমি, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম ওরফে তানভীর ও মোহাজিদুর রহমানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

এছাড়া আবরার ফাহাদকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগ থেকে ১১ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। 

আবরার ফাহাদের মরদেহের ময়নাতদন্ত রিপোর্টের বরাত দিয়ে ভোঁতা কোনো বস্তু দিয়ে পিটিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে সোমবার (৭ অক্টোবর) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ ঢাকা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেন। ময়নাতদন্তে আবরারের শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।