• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৮ সকাল

নাটোরে আনসার সদস্যসহ দুই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার

  • প্রকাশিত ১১:২০ সকাল অক্টোবর ৯, ২০১৯
লাশ
প্রতীকী ছবি

বুধবার (৯ অক্টোবর) সকালে নিজ শয়ন কক্ষ থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়

নাটোরের বাগাতিপাড়া ও লালপুর উপজেলায় এক আনসার সদস্যসহ দুই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৯ অক্টোবর) সকালে নিজ শয়ন কক্ষ থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। বাগাতিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন এবং লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত আনসার সদস্য. সাবিনা ইয়াসমিন ওরফে সায়রা (৩৪) লালপুর উপজেলার চং ধূপইল গ্রামের শাহীনের স্ত্রী এবং রেহেনা বেগম (৬০) বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তীপুর গ্রামের সাফাতুল্লাহ স্ত্রী।

লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়দের বরাতেজানান, আনসার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন ওরফে সায়রার স্বামী শাহিন করিমপুর এলাকারকাঠমিস্ত্রি।  সে মাঝেমধ্যে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে তার শ্বশুরবাড়িতে আসতো।

গতরাতে দুর্গাপূজার ডিউটি শেষেসাবিনা নিজ ঘরে শুয়ে পড়েছিল। পরে রাত তিনটার দিকে সাবিনার দাদি ঘরের বাইরে বের হতে চাইলে দেখেন ঘরের দরজা বাইরে থেকে আটকানো। এসময় তার চিৎকারে অন্যান্য সবার ঘুম ভেঙে গেলে সবাই নিজেদেরকে ঘরে আটকানো অবস্থায় দেখতে পান। পরে একজন তার ঘরের জানালা ভেঙে অন্যান্য ঘরের দরজা খুলে দেওয়ার সময় সাবিনার অনুপস্থিতি খেয়াল করে। ডাকাডাকির একপর্যায়ে তার ঘরে যাওয়ার পর সাবিনার মৃতদেহ খাটের ওপর পড়ে থাকতে দেখে। মৃত সাবিনার গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় দেখে পুলিশে খবর দেয়া হলে সকালে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে।

অপরদিকে বাগাতিপাড়ায় নিহতের মেজো ছেলে রানা বলেন, গভীর রাতে তার বাড়ির মধ্যে কাঁচ ভাঙ্গার শব্দ পেলে প্রতিবেশী বাড়িতে এসে তার মায়ের মৃতদেহ দেখতে পান। নিহত রেহানা বেগম একাই ওই বাড়িতে থাকতেন বলেও জানান তার ছেলে। 

উভয় ঘটনায় বাগাতিপাড়া থানার ওসি আব্দুল মতিন এবং লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, মৃতদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।