• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৬ রাত

আবরার হত্যা: বিচারের দাবিতে মৌন মিছিল

  • প্রকাশিত ১১:৫৬ সকাল অক্টোবর ৯, ২০১৯
আবরার হত্যা
বুধবার (৯ অক্টোবর) সকাল ১০টায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে মৌন মিছিল করেছে ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মেহেদি হাসান/ঢাকা ট্রিবিউন/

বেলা ১২টার দিকে আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে ছাত্রদলও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনের সামনে থেকে মুখে কালো কাপড় বেধে আরেকটি মৌন মিছিল বের করে 

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে মৌন মিছিল করেছে ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। 

বুধবার (৯ অক্টোবর) সকাল ১০টায় শহীদ মিনার থেকে মিছিলটি বের করা হয়। 

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) পর্যন্ত আবরার হত্যার ঘটনায় মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এদিকে বেলা ১২টার দিকে আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনের সামনে থেকে মুখে কালো কাপড় বেধে মৌন মিছিল করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল।

প্রসঙ্গত, রবিবার (৬ অক্টোবর) রাতে আবরারকে নিজ কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

সোমবার (৭ অক্টোবর) দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন, “ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।”

নিহত আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরে বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।