• বুধবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

সম্রাট অসুস্থ থাকায় রিমান্ড শুনানি হয়নি

  • প্রকাশিত ০৪:৫৮ বিকেল অক্টোবর ৯, ২০১৯
ইসমাইল হোসেন সম্রাট
ইসমাইল হোসেন সম্রাট

বুধবার (৯ অক্টোবর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরাফুজ্জামান আনছারী শুনানি শেষে এ আদেশ দেন

যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি (বহিষ্কৃত) ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের সহযোগী আরমানের বিরুদ্ধে রমনা থানার মাদক মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

বুধবার (৯ অক্টোবর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরাফুজ্জামান আনছারী শুনানি শেষে এ আদেশ দেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বাংলা ট্রিবিউন।

একইসঙ্গে এদিন সম্রাট অসুস্থ থাকায় এবং আদালতে হাজির হতে না পারায়, তার বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র মামলায় গ্রেফতার ও রিমান্ড শুনানির জন্য আগামী ১৫ অক্টোবর দিন ধার্য করেন বিচারক।

সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) নিজাম উদ্দিন এতথ্য জানান।

তিনি বলেন, “সম্রাটের বিরুদ্ধে দুই মামলায় গ্রেফতার ও রিমান্ড বিষয়ের শুনানি ও তার সহযোগী আরমানের বিরুদ্ধে শুধুমাত্র মাদক মামলায় রিমান্ড শুনানির জন্য আগামী ১৫ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।”

এর আগে গত ৭ অক্টোবর প্রত্যেক মামলায় উভয়ের ১০দিন করে রিমান্ডের আবেদন করে র‌্যাব। এরপর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটইয়াসমিন আরা সম্রাট ও তার সহযোগীকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদনসহ রিমান্ড শুনানির জন্য বুধবার (৯ অক্টোবর) দিন ধার্য করেন।

মামলা দুটির বাদী র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। উভয় মামলার এজাহারে বলা হয়েছে— মতিঝিল, আরামবাগ, ফকিরাপুল ও পল্টনসহ রাজধানীতে ১০টি ক্লাবে ক্যাসিনো ব্যবসা ছিল। সবার কাছে তিনি ‘ক্যাসিনো সম্রাট’ হিসেবে পরিচিত। পাশাপাশি দলীয় পদের অপব্যবহার করে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি করতেন। কেউ চাঁদা দিতে না চাইলে তাকে ধরে নিয়ে নির্যাতন করতো সম্রাটের ক্যাডাররা। সম্রাটের কার্যালয় থেকে র‌্যাব অবৈধ অস্ত্র, মাদকসহ নির্যাতন করার ইলেকট্রিক শকড মেশিন উদ্ধার করেছে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।