• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৯ সকাল

১০ ঘণ্টা পর ৩ র‍্যাব সদস্যসহ ৫ জনকে ফেরত দিলো বিএসএফ

  • প্রকাশিত ০৮:১৯ রাত অক্টোবর ১০, ২০১৯
বিজিবি-র‍্যাব
বৃহস্পতিবার বিকেলে আটকের প্রায় ১০ ঘণ্টা পর কুমিল্লা সীমান্তে পেরিয়ে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করতে গিয়ে আটক হওয়া র‍্যাব-১১ এর ৩ সদস্য ও তাদের ২ নারী সোর্সসহ ৫ জনকে ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। ঢাকা ট্রিবিউন

সীমান্তে মাদক ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করতে গিয়ে ভুল করে ভারতের ভেতরে ঢুকে পড়েছিলেন তারা

আটকের প্রায় ১০ ঘণ্টা পর কুমিল্লা সীমান্তে পেরিয়ে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করতে গিয়ে আটক হওয়া র‌্যাব-১১ এর ৩ সদস্য ও তাদের ২ নারী সোর্সকে ফেরত দিয়েছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনী (বিএসএফ)।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বিকাল ৫টার দিকে আশাবাড়ি সীমান্ত দিয়ে তাদেরকে হস্তান্তর করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সংকুচাইল বিওপির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল ইসলাম।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী শশীদল ইউনিয়নের আশাবাড়ি উত্তরপাড়া এলাকা থেকে ৩ র‍্যাব সদস্যসহ ৫ জনকে আটক করে বিএসএফ। তারা হলেন - র‌্যাবের কনস্টেবল আবদুল মতিন, কনস্টেবল রিগেন বড়ুয়া, সৈনিক ওয়াহেদুল ইসলাম ও তাদের দুই নারী সোর্স। তবে, ওই ২ নারী সোর্সের নাম জানা যায়নি। পরে এঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

র‍্যাব-১১ সিপিসি-২ এর ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মুহিতুল ইসলাম জানান, র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর একটি দল বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা থেকে আশাবাড়ি এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে যায়। এসময় মাদক চোরাকারবারীরা পালানোর চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া দেন র‍্যাব সদস্যরা। একপর্যায়ে র‌্যাবের কয়েকজন সদস্য অসাবধানতাবশত ভারতীয় সীমান্তের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়েন। এতে ভারতীয় নাগরিকরা তাদেরকে আটক করে মারধর করে এবং বিএসএফ-এর নিকট হস্তান্তর করে। এসময় তাদের ব্যবহৃত ১টি পিস্তল, ৭টি বুলেট ও অন্যান্য সামগ্রী জব্দ করে বিএসএফ।

পরে খবর পেয়ে কুমিল্লা থেকে র‌্যাব ও বিজিবি’র পদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আটকদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেন। এরপর বিকাল ৪টায় শুরু হয় বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক। ওই বৈঠক শেষে বিকাল ৫টায় তাদেরকে ফেরত দেওয়া হয়। বৈঠকে ভারতের ৭৪-বিএসএফ এর পরিদর্শক আর.জে মিঠু ও বাংলাদেশের সংকুচাইল বিওপির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল ইসলামসহ বিএসএফ-বিজিবির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এপ্রসঙ্গে বিজিবির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল ইসলাম ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "ভুলবশত ভারতে অনুপ্রবেশ করা র‍্যাব সদস্যদের ফেরত আনতে দিনভর বিএসএফ এর সাথে পত্রবিনিময় করার পর বিকাল ৪টায় বিজিবি-বিএসএফ এর মধ্যে পতাকা বৈঠক শুরু হয়। পরে বিকাল ৫টার দিকে বিএসএফ ওই ৫ জনকে হস্তান্তর করে। এসময় তাদেরকে খুব অসুস্থ দেখাচ্ছিল।"