• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৪৩ বিকেল

‘আমার ছেলেকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে’

  • প্রকাশিত ০২:৪০ দুপুর অক্টোবর ১৩, ২০১৯
সম্রাট
রবিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে ষড়যন্ত্র করে সম্রাটকে ফাঁসানো হয়েছে বলে দাবি করেন তার মা সায়রা খাতুন চৌধুরী। মেহেদি হাসান/ঢাকা ট্রিবিউন

রবিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ১১টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সম্রাটের মা সায়রা খাতুন চৌধুরী

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাবেক সভাপতি (বহিষ্কৃত) যুবলীগ নেতা  ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার মা সায়রা খাতুন চৌধুরী।

রবিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি করেন তিনি।

সায়রা খাতুন বলেন, “বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় দেওয়া ছয়মাসের কারাদণ্ডের বিষয়ে আদালতের কোনো আদেশ আমাদের দেখানো হয়নি।”

তিনি আরও বলেন, “সম্রাটের বিরুদ্ধে ক্যাঙ্গারুর চামড়া নিয়ে যে মামলা দেখানো হয়েছে, সেই চামড়া বিদেশ থেকে উপহার পেয়েছে সে। পশুটিকে শিকার বা হত্যা কোনোটাইে এদেশে হয়নি, তাই তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশি আইনে বিচার গ্রহণযোগ্য নয়।”

এসময় সম্রাট অসুস্থ দাবি করে তিনি বলেন, “আমার ছেলে স্পষ্টতই ষড়যন্ত্রের শিকার, তার চিকিৎসা প্রয়োজন। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার ছেলের মুক্তির জন্য অনুরোধ করছি।”

এসময় সম্রাটের বোন ফারহানা আখতার চৌধুরী মিলি বলেন, “সম্রাট কোনো স্পোর্টিং ক্লাবের পরিচালক ছিল না। এমনকি তিনি অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গেও সংশ্লিষ্ট নন। পুরো বিষয়টিই সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত।”

প্রসঙ্গত, গত ৬ অক্টোবর ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক সভাপতি সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা থেকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। 

একইদিন তাকে অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর তাকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।