• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৪৭ সকাল

খুলনায় মাদ্রাসাছাত্রীকে গণধর্ষণ

  • প্রকাশিত ১১:৫৬ সকাল অক্টোবর ২১, ২০১৯
গণধর্ষণ
প্রতীকী ছবি।

এই ঘটনায় জাকির নামে এক কলেজছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

খুলনার শিরোমণিতে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে (১৪) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রবিবার (২০ অক্টোবর) এই ঘটনায় জাকির (২০) নামে এক কলেজছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এর আগে রবিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে জাকিরসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেছেন খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মো. কবির হোসেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৬ মাস আগে ভুক্তভোগী ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন অভিযুক্ত জাকির। গত ৮ অক্টোবর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভুক্তভোগীকে ফুসলিয়ে ফরিদপুরে নিয়ে যান তিনি। সেখানে গিয়ে জাকিরের ৭-৮ জন বন্ধু ভুক্তভোগীকে গণধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ১৭ অক্টোবর তাকে খুলনায় ফিরিয়ে আনা হয়।

অসুস্থাবস্থায় বাড়িতে ফিরে ভুক্তভোগী ছাত্রী তার মাকে সব খুলে বললে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগে ভর্তি করা হয়। পরে এই ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা থানায় মামলা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে জাকিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, "এ ঘটনায় রবিবার দুপুরে খানজাহান আলী থানায় কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওইদিনই মামলার মূল আসামি জাকিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।"