• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৬ রাত

ইলিশ শিকার: বরিশালে ৮ পুলিশ সদস্যের শাস্তি

  • প্রকাশিত ০৫:৪৬ সন্ধ্যা অক্টোবর ২২, ২০১৯
পুলিশ
প্রতীকী ছবি

তেঁতুলিয়া নদীর ধুলিয়া পয়েন্টে মা ইলিশ রক্ষার অভিযানে বরিশাল মেট্রোপলিটন কনস্টেবল জুলফিকার আলী ও মোহাম্মদ আলীকে আটক করে স্থানীয় প্রশাসন

কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে পটুয়াখালীর জলসীমায় ইলিশ ধরার অভিযোগে গত দুই দিনে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত আটজন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, শাস্তি পাওয়া তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত এবং পাঁচজনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঘটনার তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আকরাম হোসেন।

তিনি জানান, এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না। ঘটনার তদন্ত শেষে পুরো বিষয়টি জানানো যাবে।

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া পুলিশ কর্মকর্তারা হলেন- উপ-পরিদর্শক আনিস, কনস্টেবল মোহম্মদ আলী ও জুলফিকার আলী। প্রত্যাহার  সদস্যরা হলেন- এএসআই তরিকুল ইসলাম, এফরান, সোহেল, কনস্টেবল জাকির ও ইব্রাহিম। তারা সবাই বন্দর থানায় কর্মরত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, রবিবার পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় তেঁতুলিয়া নদীর ধুলিয়া পয়েন্টে মা ইলিশ রক্ষার অভিযানে বরিশাল মেট্রোপলিটন কনস্টেবল জুলফিকার আলী ও মোহাম্মদ আলীকে আটক করে স্থানীয় প্রশাসন। ওই অভিযানে আরও ৪ জেলেকে আটক ও মা ইলিশ জব্দ করা হয়।