• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৪ দুপুর

হাইকোর্টের বেঁধে দেওয়া সময়ে নবায়ন হয়েছে মাত্র ৮৯ হাজার গাড়ির ফিটনেস

  • প্রকাশিত ০১:১৬ দুপুর অক্টোবর ২৩, ২০১৯
বাস মেরামত
মেরামতের জন্য ঠেলে ওয়ার্কশপে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ফিটনেসবিহীন বাস ঢাকা ট্রিবিউন

গত ২৩ জুলাই এক আদেশে লাইসেন্স থাকা ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩২০টি ফিটনেস নবায়ন না করা গাড়ির ফিটনেস নবায়ন করতে মালিকদের দুইমাস সময় দেয় হাইকোর্ট

হাইকোর্টের বেঁধে দেওয়া দুই মাস সময়ে প্রায় ৫ লাখ গাড়ির মধ্যে মাত্র ৮৯ হাজার ২৬৯টি গাড়ির ফিটনেস মালিকরা নবায়ন করেছেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

সংস্থাটি বুধবার (২৩ অক্টোবর) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে এবিষয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

গত ২৩ জুলাই এক আদেশে লাইসেন্স থাকা ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩২০টি ফিটনেস নবায়ন না করা গাড়ির ফিটনেস নবায়ন করতে মালিকদের দুইমাস সময় দেয় হাইকোর্ট। ১ আগস্ট থেকে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এটি সম্পন্ন করতে বলা হয়।

এসময়ের পর আর কোনো ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় চলতে পারবে না উল্লেখ করে হাইকোর্ট এ আদেশটি গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচার করতে বিআরটিএকে নির্দেশও দিয়েছিল।

এর আগে, ২৪ জুন আদালতে জমা দেয়া বিআরটিএর প্রতিবেদনে বলা হয়, ঢাকাসহ সারা দেশে লাইসেন্স নিয়ে ফিটনেস নবায়ন না করা গাড়ির সংখ্যা ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩২০টি। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২ লাখ ৬১ হাজার ১১৩, চট্টগ্রাম বিভাগে ১ লাখ ১৯ হাজার ৫৮৮, রাজশাহী বিভাগে ২৬ হাজার ২৪০, রংপুর বিভাগে ৬ হাজার ৫৬৮, খুলনা বিভাগে ১৫ হাজার ৬৬৮, সিলেট বিভাগে ৪৪ হাজার ৮০৫ এবং বরিশাল বিভাগে ৫ হাজার ৩৩৮টি গাড়ি মেয়াদোত্তীর্ণ ও ফিটনেসবিহীন রয়েছে।