• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:০১ দুপুর

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর ‘স্থগিত’ চায় যুক্তরাষ্ট্র

  • প্রকাশিত ০৫:২৭ সন্ধ্যা অক্টোবর ২৪, ২০১৯
ভাসান চর
ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের থাকার ব্যবস্থা। ছবি: সংগৃহীত

রোহিঙ্গাদের ভাসান চরে পুনর্বাসনের পরিকল্পনা নিয়ে গত ২১ অক্টোবর আলোচনা করে বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সেখানে বাংলাদেশ আবারও আশ্বাস দেয়, কেবল স্বেচ্ছায় পুনর্বাসনে ইচ্ছুকদের ভাসান চরে নিয়ে যাওয়া হবে

সীমান্ত খুলে দিয়ে বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেও ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন “স্থগিত” চায় যুক্তরাষ্ট্র।

স্বতন্ত্র বিশেষজ্ঞরা ভাসানচরকে বসবাসের জন্য উপযুক্ত হিসেবে উল্লেখ না করা পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরের পরিকল্পনা স্থগিত চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে বাংলাদেশ জোর করে নয়, যারা স্বেচ্ছায় যেতে চায় তাদের সেখানে নিয়ে যেতে চায়।

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও কেন্দ্রীয় এশিয়া ব্যুরোর ভারপ্রাপ্ত অ্যাসিসটেন্ট সেক্রেটারি অ্যালিস জি ওয়েলস বলেন, “স্বাধীন বিশেষজ্ঞরা যতক্ষণ পর্যন্ত এটিকে (ভাষান চর) উপযুক্ত স্থান হিসেবে নির্ধারণ করতে না পারছে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা ভাসানচরে শরণার্থী স্থানাস্তর স্থগিত রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।”

কংগ্রেসম্যান ব্র্যাড শেরম্যানের সভাপতিত্বে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরে হাউস অব ফরেন অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক সাব কমিটির সামনে শুনানি শেষে তিনি এ আহ্বান জানান।

এর আগে রোহিঙ্গাদের ভাসান চরে পুনর্বাসনের পরিকল্পনা নিয়ে গত ২১ অক্টোবর আলোচনা করে বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সেখানে বাংলাদেশ আবারও আশ্বাস দেয় কেবল স্বেচ্ছায় পুনর্বাসনে ইচ্ছুকদের ভাসান চরে নিয়ে যাওয়া হবে।

সম্প্রতি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলমও ভাসান চার নিয়ে এক টুইট করেন। টুইটে একটি ভিডিও শেয়ারের পাশাপাশি ক্যাপশনে লেখেন রোহিঙ্গাদের পরিবারকে স্বাগত জানাতে ভাসানচর প্রস্তুত।

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের সরকারি বাহিনীর নির্যাতন ও সহিংসতার শিকার হয়ে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে। যদিও অতীতে বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের মোট সংখ্যা ১১ লাখেরও বেশি।