• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪১ দুপুর

চিরকুটে ‘বাবা-মা মিলে মিশে থাকুক’ লিখে কিশোরের ‘আত্মহত্যা’

  • প্রকাশিত ০৭:১০ রাত অক্টোবর ২৪, ২০১৯
ব্রাহ্মণবাড়িয়া আত্মহত্যা
বাবা-মায়ের উদ্দেশে চিঠি লিখে আত্মহত্যা করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক কিশোর ঢাকা ট্রিবিউন

'আমার মৃত্যুর জন্য কারো দায় নেই। আমি চাই মা-বাবা মিলে মিশে থাকুক'

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় এক স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সে উপজেলার তুলাইশিমুল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। 

বুধবার (২৩ অক্টোবর) বিকেল ৪টার দিকে বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ওই কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃত্যুর আগে একটি চিরকুট সে লিখে গেছে, “আমার মৃত্যুর জন্য কারো দায় নেই। আমি চাই মা-বাবা মিলে মিশে থাকুক, কখনও ঝগড়া না করুক। ভাই-বোনদেরকে না মারধর করে যেন স্নেহ-আদর করে। আমাকে মাফ করে দিও।”

প্রতিবেশীরা জানান, বুধবার সকালে ওই কিশোরের মায়ের সঙ্গে প্রবাসে থাকা বাবার মিয়ার বাকবিতণ্ডা হয়। এ ঘটনার পর ওই কিশোরকে মারধর করেন তার মা। কিছুক্ষণ পরে ছেলেকে ঘরে একা রেখে বাবার বাড়িতে চলে যান তিনি। 

পুলিশ জানায়, দীর্ঘক্ষণ ঘরের দরজা-জানালা ভেতর থেকে বন্ধ দেখে প্রতিবেশীদেরা দরজা ধাক্কাতে শুরু করেন। কোনো সাড়া না পেয়ে থানায় খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ এসে ওই কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ রসুল আহমেদ নিজামী জানান, ওই কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন এবং বিস্তারিত তদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।