• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:১৩ বিকেল

শিশুরা খুঁজে পেল মাইন-গ্রেনেড, গায়ে লেখা সাল-তারিখ

  • প্রকাশিত ১০:২৬ রাত অক্টোবর ২৬, ২০১৯
বগুড়া
বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ছয়টি মাইন ও তিনটি গ্রেনেড উদ্ধার করা হয়। ঢাকা ট্রিবিউন

রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশ বোমাগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ছয়টি মাইন ও তিনটি গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৬ অক্টোবর) রাতে উপজেলার রামপুর গ্রামের একটি পুকুরপাড় সেগুলো উদ্ধার করা হয়। 

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, শনিবার বিকেলে কয়েকটি শিশু রামপুরা গ্রামের ওই পুকুর পাড়ে বসে খেলা করছিল। এ সময় তারা কাস্তে দিয়ে মাটি খুঁড়লে একে একে ছয়টি মাইন ও তিনটি গ্রেনেড বের হয়ে আসে। তারা সেগুলো নিয়ে খেলা করার সময় গ্রামের লোকজন দেখতে পায়। পরে আদমদীঘি থানায় খবর দিয়ে বোমাগুলো বালতির পানিতে ঢুবিয়ে রাখা হয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশ বোমাগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন জানান, মাইন ও গ্রেনেডের গায়ে ১৯৬৫ সাল লেখা রয়েছে। তার ধারণা বোমাগুলো মুক্তিযুদ্ধের সময়কালের। সেগুলো পরীক্ষার জন্য বিশেষজ্ঞদের ডাকা হবে।