• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৮ দুপুর

তোষক-বালিশ নিয়ে ভিসির বাড়ির সামনে ঢাবি শিক্ষার্থীদের অবস্থান

  • প্রকাশিত ০১:২৭ দুপুর অক্টোবর ২৯, ২০১৯
ঢাবি
মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) চলমান আবাসন সংকটের স্থায়ী সমাধানের দাবিতে উপাচার্য বাসভবনের সামনে তোষক-বালিশ নিয়ে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার সকালে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা উপাচার্য বাসভবনে প্রবেশ করতে চাইলে বাধার মুখে এ অবস্থান নেন তারা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) চলমান আবাসন সংকটের স্থায়ী সমাধানের দাবিতে উপাচার্য বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।  

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা উপাচার্য বাসভবনে প্রবেশ করতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টোরিয়াল বডির সদস্যরা তাদের বাধা দেয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সদস্য তানভীর হাসান সৈকতের নেতৃত্বে প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীরা তোষক-বালিশ নিয়ে উপাচার্য বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন। 

এসময় ‘আমার কেন সিট নাই প্রশাসন জবাব চাই’, ‘গণরুমে ঠাঁই নাই’, ‘আবাসন সংকট সমাধান করতে হবে’ ইত্যাদি লেখা বিভিন্ন প্ল্যাকার্ডও বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের হাতে দেখা যায়।

সুদর্শন হালদার নামে এক বিক্ষোভকারী বলেন, “উপাচার্য বাসভবনে না থাকায় আমরা ভেতরে প্রবেশ করতে পারছি না।” 

গত ১ অক্টোবর উপাচার্য আখতারুজ্জামানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন সংকট নিরসনে ১৫দিনের আল্টিমেটাম দেয় শিক্ষার্থীরা। এসময় সংকট নিরসনে কোনো সমাধান বের না করলে উপাচার্য বাসভবনে  আশ্রয় নেবে বলেও হুমকি দেন শিক্ষার্থীরা।

এরআগে, ঢাকা ট্রিবিউনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে উপাচার্য আখতারুজ্জামান বলেছিলেন, “উপাচার্য ভবন একটি ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা ও জনগণের সম্পত্তি, যে কেউ এটি উপভোগ করতে পারবেন।”

আবাসন সংকট ভয়ংকর আকার ধারণ করায় ডাকসু সদস্য তানভীর কবি জসিমউদ্দিন হলের গণরুমে থাকা শুরু করেছেন। তিনি বলেন, “যতদিন পর্যন্ত প্রশাসন শিক্ষার্থীদের জন্য সিট বরাদ্দ দেবেন না, ততদিন তিনি হলের গণরুমে থাকবেন।”