• সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৫৩ দুপুর

বাল্য বিয়ে করতে এসে ঠাঁই হলো শ্রীঘরে

  • প্রকাশিত ০৫:৪৬ সন্ধ্যা অক্টোবর ৩১, ২০১৯
বাল্য বিয়ে
আটক বর মো. মনির মিয়া। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

এ সময় খবর পেয়ে কনের অভিভাবকেরা অন্যত্র গা ঢাকা দেয়

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগর উপজেলায় বাল্য বিয়ে করার দায়ে মো. মনির মিয়া (২৩) নামে এক ব্যক্তিকে এক মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। 

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) দুপুরে নাসিরপুর কোনাপাড়া গ্রামে বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে কনের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে এই সাজা দেওয়া হয়। 

ভ্রাম্যমান আদালতের দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আজগর আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমাদের আমরা জানতে পারি নাসিরপুর কোনাপাড়া গ্রামের আবতাব উদ্দিনের ছেলে মো. মনির মিয়ার সাথে একই গ্রামের মাহফুজ মিয়ার স্কুলপড়ুয়া সপ্তম শ্রেণির কন্যার বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। 

এ খবর পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাহমিনা আকতার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলিশ নিয়ে বিয়ে বাড়িতে হাজির হয়। এ সময় খবর পেয়ে কনের অভিভাবকেরা অন্যত্র গা ঢাকা দেয়।

পরে ঘটনাস্থল থেকে বরকে আটক করে পুলিশ। এ সময় কনের বয়স এবং কাগজপত্র যাচাই করে দেখা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জজ কোর্টের এডভোকেট ইমদাদুল হক হাদির নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে তাদের বয়স বাড়ানো হয়েছে। কনের স্কুলের নথিপত্র যাচাই করে বয়স ১৬ বলে প্রমানিত হয়।

বাল্য বিয়ে করার দায়ে বর মো: মনির মিয়াকে বাল্য বিয়ে নিরোধ আইন-২০১৭ এর ৭(১) ধারায় এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যমান আদালতের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী অফিসার মো. আজগর আলী জানান, বর-কনের বয়স বাড়িয়ে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ের ব্যবস্থা করায় সংশ্লিষ্ট আইনজীবীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে বিষয়টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে অবহিত করা হয়েছে।