• সোমবার, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৫ রাত

আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে ধর্ষণের অভিযোগ, পুলিশ সদস্য গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ০৯:১৮ রাত অক্টোবর ৩১, ২০১৯
লালমণিরহাট পুলিশ
অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল আল আমিন ঢাকা ট্রিবিউন

বিয়ে করার কথা দিয়ে স্বামীকে তালাক দিতে বাদীকে বাধ্য করেন অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল

আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন লালমণিরহাটের এক নারী। এ অভিযোগে ওই পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) দুপুরে আল আমিন নামে ওই পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার দেখিয়ে লালমণিরহাট চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সাল থেকে ওই নারীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়ান আল আমিন। অন্তরঙ্গ মুহূর্তের স্থির ও ভিডিওচিত্র গোপনে ধারণ করে ওই নারীকে ধর্ষণ করে আসছিলেন তিনি। একপর্যায়ে বিয়ে করার কথা দিয়ে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে স্বামীকে তালাক দিতে বাদীকে বাধ্য করেন অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল। 

কিন্তু দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও বিয়ে করতে টালবাহানা শুরু করলে বিষয়টি পুলিশকে জানান ওই নারী। 

অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল মো. আল আমিনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে লালমণিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম বলেন, ‘‘বাদীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে কনস্টেবল আল আমিনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।’’