• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৪ দুপুর

দুদক চেয়ারম্যান: শিক্ষক নিয়োগ ও বদলি প্রক্রিয়ায় তদবিরবাজদেরও ধরা হবে

  • প্রকাশিত ০৮:০৯ রাত নভেম্বর ১, ২০১৯
দুদক চেয়ারম্যান
শুক্রবার দুপুরে রাজশাহী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আয়োজনে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিশেষ সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ জনসচেতনতামূলক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। ঢাকা ট্রিবিউন

'তদবির করা ও ঘুষ খাওয়া একই কথা'

শিক্ষক নিয়োগ ও বদলি প্রক্রিয়ায় তদবিরবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

শুক্রবার (০১ নভেম্বর) দুপুরে রাজশাহী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আয়োজনে নগরীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান মিলনায়তনে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিশেষ সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ জনসচেতনতামূলক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, "এখন থেকে শিক্ষকদের বদলি প্রক্রিয়া এখন অনলাইনে হবে। বদলি ও নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোনো প্রকার তদবির বরদাশত করা হবে না। তদবির করা ও ঘুষ খাওয়া একই কথা। ফলে তদবিরবাজরা সাবধান।" 

"শিক্ষা বিভাগের বদলি ও নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সচিব থেকে শুরু করে যারাই দুর্নীতির সাথে যুক্ত হবে তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

ইকবাল মাহমুদ আরও বলেন, "দুদকের কাজ শুধু দুর্নীতিবাজদের ধরাই না, তাদের মূল কাজ হচ্ছে দুর্নীতি যাতে না হয় সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া। এইজন্য আমরা মানসম্মত শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছি। প্রাথমিক পর্যায়ে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করা গেলে দুর্নীতি অনেকাংশে কমে যাবে।"

রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদফতরের সচিব আকরাম আল হোসেন, মহাপরিচালক ড. এ এফ এম মনজুর কাদির প্রমুখ।