• সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪২ দুপুর

ওবায়দুল কাদের: চার নেতার খুনিদের ফেরাতে কূটনৈতিক প্রয়াস বাড়ানো হবে

  • প্রকাশিত ০১:০৬ দুপুর নভেম্বর ৩, ২০১৯
ওবায়দুল কাদের
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফোকাস বাংলা (ফাইল ছবি)

‘যেসব খুনির দণ্ড কার্যকর হয়নি তারা বিদেশে পলাতক। তাদের ফিরিয়ে আনতে সরকার কূটনৈতিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আগামীতে তা আরও বাড়ানো হবে’

বিদেশে পালিয়ে থাকা চার জাতীয় নেতার খুনিদের ফেরাতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা আরও বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রবিবার (৩ নভেম্বরজেল হত্যা দিবস উপলক্ষে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে এ কথা জানান কাদের বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বাংলা ট্রিবিউন।

তিনি বলেন, “যেসব খুনির দণ্ড কার্যকর হয়নি তারা বিদেশে পলাতক। তাদের ফিরিয়ে আনতে সরকার কূটনৈতিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আগামীতে তা আরও বাড়ানো হবে।”

ওবায়দুল কাদের,  “কোনও কোনও দেশে আইনে সমস্যা আছে। তাদের দেশে মৃত্যুদণ্ডের কোনও বিধান নেই। ফাঁসির আসামি বিধায় তাদেরকে ফিরিয়ে আনতে অসুবিধা হচ্ছে। তবুও বিভিন্ন দেশে যারা রাষ্ট্র প্রধান, সরকার প্রধান উচ্চ পর্যায়ে তাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা চলছে। তাদের কীভাবে ফিরিয়ে আনা যায়।”

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বর একই সূত্রে গাঁথা। একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার জন্য জাতীয় চার নেতা নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।”

জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি কালো ব্যাজ ধারণ করেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। দিনের শুরুতে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। প্রথমে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এবং পরে দলের শীর্ষ নেতাদের নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। সকাল ৮টায় বনানী কবরস্থানে সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ ও এম মনসুর আলী এবং একই সময়ে রাজশাহীতে কামরুজ্জামানের কবরে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

বিকাল ৩টায় রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে আওয়ামী লীগ। এতে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।