• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫১ সন্ধ্যা

রাজধানীর ৩ রেস্টুরেন্টকে জরিমানা

  • প্রকাশিত ০৯:৪২ রাত নভেম্বর ৪, ২০১৯
আদালত
প্রতীকী ছবি

রাজধানীর গুলশান এলাকায় অভিযান পরিচালনাকালে এ জরিমানা করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর

বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে রাজধানী ঢাকার তিনটি রেস্টুরেন্টকে জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ।

সোমবার (৪ নভেম্বর) ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নেতৃত্বে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে গুলশান এলাকার নর্থ এন্ড কফি রোস্টারস’কে ১ লাখ টাকা, পিৎজা-ইন’কে ২০ হাজার টাকা এবং হর্স অ্যান্ড হর্স রেস্টুরেন্ট’কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযান চলাকালে ধারণকৃত একটি ভিডিও ফেসবুকে প্রকাশ করেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার।


এদিকে নর্থ এন্ড কফি রোস্টারস’এর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে দেওয়া এক বিবৃতিতে কোম্পানিটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিক হার্বাড বলেন, “আমাদের সিটিস্কেপ টাওয়ারের ক্যাফেটিতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তারা আমাদের ফ্রিজে সংরক্ষিত সবগুলো দুধের প্যাকেটের ওপর এক প্যাকেট দুধ খুঁজে পান। এই দুধের প্যাকেটটি ছিল মেয়াদোত্তীর্ণ, যেটি খোলা কিংবা ব্যবহার করা হয়নি।”

“এ কারণে আমরা জরিমানার সম্মুখীন হয়েছি এবং এটা করার আইনগত অধিকারও তাদের আছে। তাই এ ঘটনার দায় স্বীকার করছি”, বলেন তিনি।

এ বিষয়ে হর্স অ্যান্ড হর্স এর স্বত্তাধিকারী মেহরিন মনসুর বলেন, “তাদের অভিযোগ ছিল একটি বার্গারের রুটি একদিন আগেই মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে। যদিও সেটা (রুটি) ওই দিনই কেনা হয়েছিল এবং এর প্যাকেটে উৎপাদন তারিখ লেখা ছিল, মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ নয়। আমরা তাদেরকে বিষয়টি বোঝানোর চেষ্টা করেছিলাম, কিন্তু তারা এ দুটোর পার্থক্য বুঝতে পারেননি।”

তিনি বলেন, “আমার ধারণাই ছিল না গণমাধ্যমে আমরা নেতিবাচকভাবে উপস্থাপিত হতে যাচ্ছি। আমরা সব সময় আমাদের খাবার তাজা ও স্বাস্থ্যসম্মত রাখি। এটাই আমাদের অগ্রাধিকার এবং আমরা এটা সব সময়ই করব।”

অন্যদিকে একাধিকবার চেষ্টা করেও পিৎজা-ইন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।