• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৮ রাত

নিখোঁজের ৬দিন পর গৃহবধূর গলিত মরদেহ উদ্ধার

  • প্রকাশিত ০৮:২২ রাত নভেম্বর ৬, ২০১৯
মরদেহ
নিখোঁজের ছয়দিন পর ঝিনাইদহে মহেশপুর উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামের মাঠ থেকে রিতু খাতুন নামের এক গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন

গত ৩১ অক্টোবর বাবারবাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলো সে

নিখোঁজের ছয়দিন পর ঝিনাইদহে মহেশপুর উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামের মাঠ থেকে রিতু খাতুন নামের এক গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (৬ নভেম্বর) সকালে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। রিতু খাতুন ওই গ্রামের আব্দুর সবুরের মেয়ে ও একই উপজেলার পদ্মরাজপুর গ্রামের মোমিন তরফদারে ছেলে সাগর হোসেনের স্ত্রী।

গত ৩১ অক্টোবর রিতু বাবারবাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়ি একই উপজেলার পদ্মরাজপুর গ্রামে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিলো সে।

ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কোটচাঁদপুর সার্কেল) আতিক হাসান জানান, বুধবার সকালে ডাকাতিয়া গ্রামের এক হলুদক্ষেতে গলিত লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। পরিবারের লোকজন রিতুর পরিচয় সনাক্ত করে। পুলিশ পরে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। 

রিতুর স্বজনরা জানান, রিতু গুড়দাহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী ছিলো। গত ৭ মাস আগে একই উপজেলার পদ্মরাজপুর গ্রামের মোমিন তরফদারের কলেজপড়ুয়া ছেলে সাগরের সাথে প্রেমের সর্ম্পকের জেরে তারা যশোর গিয়ে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করে। সেসময় শর্ত ছিল মেয়ে এসএসসি ও ছেলে এইচএসসি পাশ না করা পর্যন্ত বিয়ের বিষয়টি গোপন থাকবে। তবে, বিষয়টি ফাঁস হয়ে গেলে উভয় পরিবারের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।