• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৫৭ সকাল

ফের উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আন্দোলনরতরা

  • প্রকাশিত ১০:৫২ রাত নভেম্বর ৭, ২০১৯
জাবি
উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আন্দোলনরতদের প্রতিবাদী কনসার্ট। ঢাকা ট্রিবিউন

‘সভা-সমাবেশ, মিছিলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আমরা জমায়েত হয়েছি। ওই নিষেধাজ্ঞা দেখেই বোঝা যায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আন্দোলনকারীদের কতটা ভয় পায়৷ আমরা শান্তিপূর্ণভাবে গান, কবিতা পাঠের মতো কর্মসূচি পালন করবো’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আবারও উপাচার্য বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সন্ধ্যা ছয়টা ২৫ মিনিটে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয় আন্দোলনরতরা। এ সময় আন্দোলনরতদের পাশেই পুলিশ উপাচার্যের বাসভবনের জন্য নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করে।

“দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর” মঞ্চের সংগঠক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শোভন রহমান বলেন, “সভা-সমাবেশ, মিছিলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আমরা জমায়েত হয়েছি। ওই নিষেধাজ্ঞা দেখেই বোঝা যায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আন্দোলনকারীদের কতটা ভয় পায়৷ আমরা শান্তিপূর্ণভাবে গান, কবিতা পাঠের মতো কর্মসূচি পালন করবো।”


আরও পড়ুন - জাবি ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদকের পদত্যাগ


এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত, আন্দোলনরতরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে প্রতিবাদী কনসার্টের প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

এর আগে গত বুধবার সভা-সমাবেশ, মিছিলে নিষেধাজ্ঞা জারির পরপরই তা প্রত্যাখ্যান করে প্রতিবাদী কনসার্টের ঘোষণা দিয়েছিল আন্দোলনকারীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) আ.স.ম. ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলগুলো ফাঁকা হয়ে গেছে। এখন কেউ যদি পরিস্থিতি অস্বাভাবিক করে তবে তা শৃঙ্খলাবিরোধী কাজ হবে।”

পরিস্থিতির অবনতি হলে অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর।


আরও পড়ুন - বিষণ্ন রাত: প্রসঙ্গ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়