• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:০১ দুপুর

শনিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’

  • প্রকাশিত ০৬:২৯ সন্ধ্যা নভেম্বর ৮, ২০১৯
ঘূর্ণিঝড় বুলবুল
ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের গতিপথ। ছবি: সংগৃহীত

উপকূলীয় অঞ্চলের  ১ হাজার ৩৭৭টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে

ঘূর্ণিঝড় "বুলবুল" শনিবার সন্ধ্যা নাগাদ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উপকূলীয় জেলাগুলোতে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এরই মধ্যে ওইসব এলাকায় থাকা ১ হাজার ৩৭৭টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) আবহাওয়া আবহাওয়া অধিদপ্তরের পাঠানো এক বুলেটিনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। বুলেটিনে দেশের চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেতের পরিবর্তে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে প্রায় ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজর বন্দর থেকে ৭১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা বন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা বন্দর থেকে ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে বলে বুলেটিনে বলা হয়।

খুলনা আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা আমিরুল আজাদ বলেন, "ঘূর্ণিঝড় বুলবুল শুক্রবার সকাল ৬টায় মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল। ভারতের ওডিসা ও পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানার পরে শনিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে প্রবল এই ঘুর্ণিঝড়টি।"

শুক্রবার সকাল ৬টায় বঙ্গোপসাগরের পশ্চিম এবং পূর্ব-কেন্দ্রে থাকা ঘূর্ণিঝড় "বুলবুল" উত্তর-পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা।

ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে প্রায় ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজর বন্দর থেকে ৭১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা বন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা বন্দর থেকে ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে বলে বুলেটিনে বলা হয়।