• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৫ দুপুর

মন্ত্রী: বিজয় দিবসে রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা হবে

  • প্রকাশিত ১০:২৮ রাত নভেম্বর ৮, ২০১৯
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক
গাজীপুরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ঢাকা ট্রিবিউন

'২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের একটি করে বাড়ি উপহার দিবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'

আগামী ১৬ ডিসেম্বর রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। শুক্রবার (৮ নভেম্বর) গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আয়োজনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির উদ্যোগে রথখোলায় বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশের উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, "এ বছরের ১৬ ডিসেম্বর রাজাকারদের তালিকা ঘোষণা করা হবে। আগামী জানুয়ারি মাসে আমাদের স্বাধীনতার পূর্তি উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। মুক্তিযোদ্ধারা কি কি সুযোগ সুবিধা পাবেন তা তাদের পরিচয়পত্রের পেছনে লেখা থাকবে। মুক্তিযোদ্ধাদের চলাচলের জন্য যানবাহনের ভাড়াসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের খরচ রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বহন করা হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী থেকে মুক্তিযোদ্ধারা এসব সুযোগ সুবিধা পাবেন।"

আ ক ম মোজাম্মেল হক আরও বলেন, "২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের একটি করে বাড়ি উপহার দিবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মুক্তিযোদ্ধাদের এসব বাড়ির প্রতিটির  মূল্য হবে ১৫ লাখ টাকা।" 

"মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা নিয়ে অসন্তোষ আছে। ভাতা যে পরিমাণ হওয়া উচিত ছিল তা হয়নি। প্রধানমন্ত্রী আগামী বছর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধি করার ঘোষণা দেবেন। মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা করা হবে ১৫ হাজার টাকা। এছাড়াও দেশের সকল মুক্তিযোদ্ধাদের কবর একই নকশায় তৈরি করা হবে", যোগ করেন তিনি।  

সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মো. রশিদুল আলম।

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা কাজী মোজাম্মেল হক, গাজীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য মো. আখতারুজ্জামান, গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইকবাল হোসেন সবুজ।