• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

তথ্যমন্ত্রী: সম্প্রচারের অপেক্ষায় আরও ১১ টিভি চ্যানেল

  • প্রকাশিত ০৮:২৫ রাত নভেম্বর ১১, ২০১৯
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ফাইল ছবি/ফোকাস বাংলা

হাছান মাহমুদ বলেন, ৪৫টি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে পূর্ণ সম্প্রচারে আছে ৩০টি। ১১টি সম্প্রচারের অপেক্ষায় আছে এবং ৪টি ফ্রিকোয়েন্সি পায়নি

নতুন আরও ১১টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল সম্প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার (১১ নভেম্বর) সংসদে টাঙ্গাইল-৬ আসনের আহসানুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে একথা জানান তিনি। এক প্রতিবেদনে এখবর জানায় বাংলা ট্রিবিউন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এদিন বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠিত হয়। 

হাছান মাহমুদ বলেন, ৪৫টি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে পূর্ণ সম্প্রচারে আছে ৩০টি। ১১টি সম্প্রচারের অপেক্ষায় আছে এবং ৪টি ফ্রিকোয়েন্সি পায়নি। 

মন্ত্রীর দেওয়া তথ্য থেকে জানা গেছে, অপেক্ষায় থাকা টিভি চ্যানেলগুলো হলো আব্দুল্লাহ আল মামুনের ‘চ্যানেল ২১’, নুর মোহাম্মদের ‘উৎসব’, মোহাম্মদ সাইফুল আলমের ‘রংধনু’, ধানাদ ইসলাম দীপ্তর ‘তিতাস’, তানভির আবিরের ‘খেলা টিভি’, জিনাত চৌধুরীর ‘আমার টিভি’, মামুনুর রশীদ কিরণের ‘গ্লোবাল টিভি’, মুহম্মদ শফিকুর রহমানের ‘সিটিজেন টিভি’, তানজিয়া সিরাজের ‘প্রাইম টিভি’, শীলা ইসলামের ‘স্পাইস টিভি’ ও আবুল বাশার মোহাম্মদ রকিবুল বাসেতের ‘টিভি টুডে’। 

এছাড়া, মেহেরপুর-২ আসনের মোহাম্মদ সহিদুজ্জামানের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী জানান, ভারত, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, নেপাল, মিয়ানমার, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কিমেনিস্তান, উজবেকিস্তান ও কাজাকিস্তানে বাংলাদেশ টেলিভিশন-বিটিভি’র সম্প্রচার হচ্ছে। এছাড়া আইপিটিভি-এর মাধ্যমে পৃথিবীর প্রায় সবদেশেই বিটিভি দেখার সুযোগ রয়েছে।