• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

কুড়িয়ে পাওয়া লক্ষাধিক টাকা ফেরত দিলেন সিএনজিচালক

  • প্রকাশিত ১০:৪২ রাত নভেম্বর ১১, ২০১৯
সিএনজিচালক হযরত আলী
সিএনজিচালক হযরত আলী ঢাকা ট্রিবিউন

টাকা নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা স্ট্যান্ডে বসে থাকেন হযরত আলী

গাজিপুরের শ্রীপুর উপজেলায় কুড়িয়ে পাওয়া ১ লাখ ১৩ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছেন হযরত আলী (৪৫) নামের একজন সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক। 

সোমবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার বরমী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হযরত আলী উপজেলার বরমী এলাকার মহর আলীর ছেলে। তিনি শ্রীপুরের বিভিন্ন সড়কে সিএনজি চালান। 

হযরত আলী বলেন, তিনি সোমবার দুপুরে পাঁচজন যাত্রী নিয়ে উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়ন থেকে বরমী ইউনয়নে যাচ্ছিলেন। সামনের সিটে তার পাশে বসেছিলেন সুপারি ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান। বরমী সিএনজি স্ট্যান্ডে সব যাত্রী নেমে যান। পরে চালকের সিটের পাশে কাগজে মোড়ানো কিছু টাকা দেখতে পান তিনি। 

ওই টাকা নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা স্ট্যান্ডে বসে থাকেন বলে জানান হযরত আলী। তিনি বলেন, এ সময় আতিকুর রহমান স্ট্যান্ডে হারিয়ে যাওয়া টাকা খুঁজতে আসেন। তাকে দেখে তিনি এগিয়ে গিয়ে টাকার প্যাকেট পাওয়ার কথা জানান।

টাকার মালিক সুপারি ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান বলেন, "পৃথিবীতে সৎ মানুষ এখনো রয়েছে। যার প্রমাণ রাখলেন হযরত আলী। এ টাকাই ছিল আমার ব্যবসায়ের মূল পুঁজি। টাকা পেয়ে আমার ব্যবসায়ী জীবন ফিরে পেলাম।" 

বরমী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শামসুল হক বাদল সরকার বলেন, সামান্য কয়েকটি টাকার জন্য বর্তমানে মানুষ অনেক কিছুই করে। কিন্তু হযরত আলী ১ লাখ টাকার বেশি পেয়েও ফেরত দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত রেখে গেলেন। হযরত আলী একজন সৎ মানুষ। তার মধ্যে কোনো লোভ নেই। এমন ব্যক্তির জন্যই সমাজ বা পৃথিবী এখনো টিকে আছে।