• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১৯ রাত

বিয়ের দাওয়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন ফারজানা

  • প্রকাশিত ০২:৩৮ দুপুর নভেম্বর ১৩, ২০১৯
ট্রেন দুর্ঘটনা
বিয়ের দাওয়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন ফারজানা সংগৃহীত/

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিয়েবাড়ি থেকে ফেরার পথে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবাতে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি

বিয়েতে যোগ দিতে পরিবারের সবার সঙ্গে সিলেটের শ্রীমঙ্গলে গিয়েছিলেন চাঁদপুরের ফারজানা আক্তার (২০)। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিয়েবাড়ি থেকে ফেরার জন্য শ্রীমঙ্গল থেকে চড়েছিলেন উদয়ন এক্সপ্রেসে। কথা ছিল লাকসাম স্টেশনে নেমেই বাড়ির পথ ধরবেন, তবে বাড়িতে আর ফেরা হলো না ফারজানার। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবাতে এসে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার শিকার হয়ে লাশ হয়ে বাড়িতে ফিরলেন তিনি। 

মঙ্গলবার চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের উত্তর বালিয়া গ্রামে ফারজানার বাড়ির উঠোনে ছিল স্বজনদের আকাশ ভারী করা আহাজারি। ভয়াবহ এ ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ফারজানার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও। আহতরা ঢাকা ও বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

ফারজানার ফুপাতো বোন আয়েশা আক্তার জানান, “গত মঙ্গলবার সিলেটের শ্রীমঙ্গলে খালাতো বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে যায় ফারজানাসহ তাদের পরিবার। ফেরার পথে এ দুর্ঘটনায় পড়ে। আমাদের পরিবারে আরও ৬ জন স্বজন গুরুতর আহত হয়ে পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।”

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার ভোর ২টা ৫৬ মিনিটের সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় ১৬ যাত্রী। নিহত এই ১৬ যাত্রীর মধ্যে ছিলো চাঁদপুরের ফারজানাও।

নিহত ফারজানা দুবাই প্রবাসী বিল্লাল বেপারীর মেয়ে। পাঁচ বছর আগে চাঁদপুর শহরের নাজির পাড়া দেওয়ান বাড়ির মোহন দেওয়ানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়।