• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় জামিন চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন

  • প্রকাশিত ০১:১৯ দুপুর নভেম্বর ১৪, ২০১৯
খালেদা জিয়া
খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি। মেহেদী হাসান/ঢাকা ট্রিবিউন

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ব্যারিস্টার কায়সার কামাল আবেদনটি করেন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গতবছরের ২৯ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে সাতবছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টে খারিজ হওয়া বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে আপিল বিভাগে আবেদন করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ব্যারিস্টার কায়সার কামাল আবেদনটি করেন।

এর আগে গত ৩১ জুলাই জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করলেন খালেদার আইনজীবীরা।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গত বছরের ২৯ অক্টোবর খালেদাকে সাতবছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই দণ্ড দেওয়া হয় তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরীসহ আরও তিনজনকে।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর দেওয়া এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন বিএনপি প্রধান। পাশাপাশি জামিন চেয়ে আবেদন জমা দেন। ৩০ এপ্রিল বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে। একইসাথে মামলার নথি দুই মাসের মধ্যে হাইকোর্টে প্রেরণের জন্য বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামানকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের সশ্রম দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাবন্দি আছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। অরফানেজের মামলায় পাঁচবছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়ে ২০১৮ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান তিনি। পরে হাইকোর্ট সাজার মেয়াদ বাড়িয়ে ১০বছর করে। এই রায়ের বিরুদ্ধে তার আপিল সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচারাধীন রয়েছে।