• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৬ রাত

মিছিল-মিটিংয়ে সাময়িক স্থগিতাদেশ দিয়ে খুলছে কুয়েট

  • প্রকাশিত ০৮:০২ রাত নভেম্বর ১৪, ২০১৯
কুয়েট
কুয়েট। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো খুলে দেওয়া হবে এবং হলের সব কক্ষ তল্লাশি করা হবে

আন্তঃহল ফুটবল খেলা নিয়ে সংঘর্ষের পর গত ১ নভেম্বর অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) একাডেমিক কার্যক্রম। ১৩ দিন পর ক্যাম্পাসে সব ধরনের সভা-সমাবেশ, মিছিল মিটিংয়ের ওপর সাময়িকভাবে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়ে আগামী ২৪ নভেম্বর থেকে একাডেমিক কার্যক্রম চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুয়েট প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) কুয়েট সিন্ডিকেটের ৬৬তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জিএম শহিদুল আলম স্বাক্ষরিত এক পত্রে জানানো হয়েছে, সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৪ নভেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব আন্ডার গ্র্যাজুয়েট শিক্ষা কার্যক্রম পুনরায় শুরু হবে। ২২ নভেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো খুলে দেওয়া হবে এবং হলের সব কক্ষ তল্লাশি করা হবে। এ কারণে সব শিক্ষার্থীকে নিজের পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে।


আরও পড়ুন - খেলা নিয়ে সংঘর্ষ: অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ কুয়েট


পত্রে আরও বলা হয়, এর আগে আগামী ১৭ নভেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পোস্ট গ্র্যাজুয়েটদের শিক্ষা কার্যক্রম পুনরায় শুরু হবে।

উল্লেখ্য, আন্তঃহল ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে গত ১ নভেম্বর অমর একুশে হল ও ফজলুল হক হলের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত হন কমপক্ষে পাঁচজন। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওইদিন রাতে হলগুলোতে উত্তেজনা দেখা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ২ নভেম্বর বিকেল ৫টার মধ্যে ছাত্রদের ৬টি হল ও ৩ নভেম্বর সকাল দশটার মধ্যে ছাত্রীদের একটি হল খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়।