• বুধবার, এপ্রিল ০৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৭ রাত

পরীক্ষায় জালিয়াতি: আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার বুবলী

  • প্রকাশিত ০৯:০৭ রাত নভেম্বর ২২, ২০১৯
নরসিংদীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী
নরসিংদীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী। ছবি: সংগৃহীত

পরীক্ষা চলাকালে সাংসদ বুবলী ঢাকায় অবস্থান করছিলেন এবং তার হয়ে এশা নামের এক শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিলেন। এ খবর দেশের গণমাধ্যম ছাড়াও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও প্রকাশ পায়

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) অধীনে বিএ পরীক্ষায় প্রক্সির মাধ্যমে জালিয়াতির অভিযোগে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ তামান্না নুসরাত বুবলীকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ।

এছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকেও তাকে অপসারণ করা হয়েছে।

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) বিকেলে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর আসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ জানান, শুক্রবার বিকেলে জেলার মনোহরদী উপজেলার গোতাশিয়া গ্রামে স্থানীয় সাংসদ ও শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের বাসভবনে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

মো. নজরুল ইসলাম বলেন, “একজন দলীয় সংসদ সদস্য হয়ে এমন অপরাধে অংশ নেওয়ায় দেশ, দল ও সংসদের মান অমর্যাদা হয়েছে। তাই তাকে দল থেকে বহিষ্কারের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, “বহিষ্কারের এ সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কাছে লিখিত আকারে পাঠানো হচ্ছে।”

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে সাংসদ তামান্না নুসরাত বুবলী ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “আজকে জেলা আওয়ামী লীগের কোনো মিটিং হয়েছে কিনা সেটা আমার জানা নাই। কমিটির পদে থাকা সত্ত্বেও আমাকে মিটিংয়ের কোনো চিঠি বা ফোনও দেওয়া হয়নি। মিটিংয়ে কি সিদ্ধান্ত হয়েছে সেটাও আমি জানি না।”

এসব তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ দাবি করে বুবলী বলেন, “আমি যতদূর জানি কাউকে বহিষ্কার করার আগে নোটিশ বা আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়।”

উল্লেখ্য, সাংসদ তামান্না নুসরাত বুবলী নরসিংদীর প্রয়াত মেয়র লোকমান হোসেনের স্ত্রী ও বর্তমান মেয়র কামরুজ্জামানের ভাবী।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামা অনুযায়ী, বুবলী এইচএসসি পাস। তবে নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা বাড়িয়ে নিতে তিনি বাউবির বিএ কোর্সে ভর্তি হন। সম্প্রতি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিএ পরীক্ষায় সাংসদ তামান্না নুসরাত বুবলীর হয়ে অন্যের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে জালিয়াতির ঘটনা ধরা পড়ে। পরীক্ষা চলাকালে সাংসদ বুবলী ঢাকায় অবস্থান করছিলেন এবং তার হয়ে এশা নামের এক শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিলেন। এ খবর দেশের গণমাধ্যম ছাড়াও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও প্রকাশ পায়। এ ঘটনায় বুবলীর সকল পরীক্ষাসহ ছাত্রত্ব বাতিল করে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।