• শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০২ রাত

জঙ্গিদের মাথায় ছিলো 'আইএসের টুপি'!

  • প্রকাশিত ০৩:১৯ বিকেল নভেম্বর ২৭, ২০১৯
হলি আর্টিজান
হলি আর্টিজান মামলায় রায় ঘোষণার পর ২৭ নভেম্বর দুই আসামির মাথায় আইএসের ব্যবহৃত প্রতীক সংবলিত টুপি দেখা যায়। মাহমুদ হোসেন অপু/ ঢাকা ট্রিবিউন

সকালে আদালতে নিয়ে আসার সময় কোনো আসামির মাথায় এই টুপি ছিল না বলে জানা গেছে

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার মামলায় বুধবার (২৭ নভেম্বর) সাত আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছে আদালত। রায় ঘোষণার পর দুই আসামির মাথায় জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) ব্যবহৃত প্রতীক সংবলিত টুপি দেখা গেছে। কড়া নিরাপত্তার মধ্যে জঙ্গীদের কাছে এই টুপি কীভাবে এলো এ নিয়ে তৈরি হয়েছে সমালোচনা। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। 

হলি আর্টিজান মামলার রায়ের প্রতিক্রিয়া জানাতে দুপুরে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মন্ত্রী। 

আনিসুল হক বলেন, "বিষয়টি জেনেছি। এটি নিয়ে তদন্ত হওয়া উচিত। আমি এখনই তদন্তের জন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলব।"

"এ রায়ের মধ্যে বিশ্বের কাছে প্রমাণিত হয়েছে যে, বাংলাদেশে এ ধরনের অপরাধীদের সঠিক আইনি প্রক্রিয়ায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিচার সম্ভব," যোগ করেন মন্ত্রী। 

জানা গেছে, দুপুরে রায় ঘোষণার পর মৃত্যুদণ্ডের আদেশপ্রাপ্ত আসামি রাকিবুল ইসলাম ওরফে রিগ্যান আইএসের প্রতীক সংবলিত টুপি পরে ছিলেন। আসামিদের প্রিজন ভ্যানে তোলার পর জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী নামের আরও এক জঙ্গিকেও একই রকম টুপি পরতে দেখা যায়।

সকালে আদালতে নিয়ে আসার সময় কোনো আসামির মাথায় এই টুপি ছিল না বলে জানা গেছে।  


আরও পড়ুন- হলি আর্টিজান মামলা: ৭ আসামির মৃত্যুদণ্ড


এর আগে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান রায় ঘোষণা করেন। রায়ে মামলায় সাত আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে খালাস দেওয়া হয়।

গত ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় বিদেশি নাগরিক ও পুলিশের দুই কর্মকর্তাসহ ২২ জন নিহত হন।