• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

নারায়ণগঞ্জে ৪ ইটভাটা বন্ধ, ৯ লাখ টাকা জরিমানা

  • প্রকাশিত ০৭:২৪ রাত ডিসেম্বর ২, ২০১৯
নারায়ণগঞ্জ-ইটভাটা
অনুমোদন না নেওয়া ও আবাসিক এলাকায় দূষণ সৃষ্টির অভিযোগ আনা হয়েছে ভাটাগুলোর বিরুদ্ধে। ঢাকা ট্রিবিউন

এসব ইটভাটার পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছিল না। তাছাড়া আবাসিক এলাকায় দূষণ সৃষ্টি করছিল

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে ইটভাটা স্থাপন, কার্যক্রম পরিচালনা ও পরিবেশ দূষণের দায়ে ৪টি ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে ফতুল্লার পাগলা এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান মারুফ ও মেহেদী হাসান ফারুকে নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জের উপ-পরিচালক মো. সাঈদ আনোয়ার ও ফায়ারসার্ভিসের কর্মীরা।

অভিযানে অনুমোদন ছাড়া ভাটা স্থাপন, আবাসিক এলাকায় দূষণ সৃষ্টি, লাইসেন্স না থাকা, ইট পোড়ানোর জ্বালানি হিসেবে কাঠ ব্যবহার করা এবং ইটের ভাটায় ৫০শতাংশ ফাঁপা ইট প্রস্তুত না করার অভিযোগে সর্বমোট ৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে এসব ইটের ভাটার কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়। 

এ সময় ৪টি ইটভাটাকে ৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। ইটভাটাগুলো হলো- আব্দুল্লাহ্ ব্রিকস সাপ্লাইয়ার-১, আব্দুল্লাহ্ ব্রিকস সাপ্লাইয়ার-২, এ এম টি ব্রিকস ফতুল্লা ও এমবিসি ব্রিকস। 

মো. সাঈদ আনোয়ার জানান, এসব ইটভাটার পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছিল না। তাছাড়া আবাসিক এলাকায় দূষণ সৃষ্টি করছিল। তাই ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান মারুফ জানান, আমাদের এ কার্যক্রম অব্যহত থাকবে।