• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

ধর্ষণের পর অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ায় গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ০৯:৫৭ রাত ডিসেম্বর ২, ২০১৯
গণধর্ষণ
প্রতীকী ছবি।

বখাটে রাজু পারুলিয়া গোপীমোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ফুঁসলিয়ে ধর্ষণ করে। সেই সময় ধর্ষক তার মোবাইলে মেয়েটির অশ্লীল ছবি তুলে রাখে

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ধর্ষণের পর স্কুল ছাত্রীর অশ্লীল ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় রাজু আহমেদ (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (০২ ডিসেম্বর) সকালে কাশিয়ানীর পারুলিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার মোবাইল ফোনটি জব্দ করে পুলিশ। গ্রেফতার রাজু কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া গ্রামের আব্দুল হামিদ মৃধার ছেলে।

এর আগে গত রবিবার (০১ ডিসেম্বর) রাতে ওই স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে কাশিয়ানী থানায় সাইবার ক্রাইম অ্যাক্ট এবং নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

মামলার বিবরণে বলা হয়, বখাটে রাজু পারুলিয়া গোপীমোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ফুঁসলিয়ে ধর্ষণ করে। সেই সময় ধর্ষক তার মোবাইলে মেয়েটির আশ্লীল ছবি তুলে রাখে। পরে রাজু এ ছবি ইন্টারেনেটে ছড়িয়ে দেয়। সম্প্রতি ছবিটি সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। 

কাশিয়ানী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ মুন্সি বলেন, “ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে রবিবার রাতে পর্নোগ্রাফি ও ধর্ষণ মামলা করেছেন। সোমবার সকালে রাজুকে তার গ্রামের বাড়ির সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়। রাজুর মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। তার মোবাইলে অশ্লীল ছবি রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামি রাজুকে গোপালগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতের কাছে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদনও করা হয়েছে।”