• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

রূম্পার মৃত্যুর ঘটনায় তরুণ আটক

  • প্রকাশিত ১০:৪৩ রাত ডিসেম্বর ৭, ২০১৯
রূম্পা হত্যাকাণ্ড
রূম্পার মৃত্যুর ঘটনায় ৭ ডিসেম্বর মানববন্ধন করেন স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের শিক্ষার্থীররা। সৌজন্যে

তিনি রুম্পার সাবেক প্রেমিক বলে জানা গেছে

স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের শিক্ষার্থী রুবাইয়াত শারমিন রূম্পার (২১) মৃত্যুর ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সৈকত নামের এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ওই তরুণকে আটক করা হয়। তিনি রুম্পার সাবেক প্রেমিক বলে জানা গেছে। 

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ডেপুটি কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "তাকে (সৈকত) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) নেওয়া হয়েছে।"

তাৎক্ষণিকভাবে সৈকতকে আটকের বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।  

গত ৪ ডিসেম্বর রাত ১১টার দিকে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোড থেকে রুম্পার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী ছিলেন। শান্তিবাগ এলাকায় মা ও ছোটভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন।

রূম্পা পুলিশ পরিদর্শক মো. রোকনউদ্দিনের মেয়ে। তিনি হবিগঞ্জে একটি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সিদ্ধেশ্বরী এলাকায় একটি ভবন থেকে পড়ে রুম্পার মৃত্যু হয়। এঘটনায় রমনা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। 

রুম্পার মৃত্যুর বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ বলেন, রুম্পার শরীরে বেশ কয়েকটি হাড় ভাঙা ছিল। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে ভবন থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।