• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:১৭ বিকেল

অভিনেত্রী নওশাবার মামলার স্থগিতাদেশ বহাল

  • প্রকাশিত ০৬:২০ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
কাজী নওশাবা আহমেদ
অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ। ফাইল ছবি/ঢাকা ট্রিবিউন

রবিবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ হাইকোর্টের ছয় মাসের স্থগিতাদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন নাকচ করে দেন

ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের বিরুদ্ধে তথ্য ও প্রযুক্তি আইনে করা মামলার কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিতাদেশের হাইকোর্টের রায় বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

রবিবার (৮ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ হাইকোর্টের ছয় মাসের স্থগিতাদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন নাকচ করে দেন বলে ইউএনবি'র একটি খবরে বলা হয়। এর আগে গত ২০ নভেম্বর মামলার কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৪ আগস্ট নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় কাজী নওশাবা নিজের ফেসবুক থেকে অত্যন্ত আবেগময় কণ্ঠে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করে বলেন, "জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে একজনের চোখ উঠিয়ে ফেলেছে আর চারজনকে মেরে ফেলেছে। আপনারা যে যেখানে আছেন কিছু একটা করুন।"

জিগাতলায় এ ধরনের ঘটনা নিয়ে তার এ ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়। ওই দিনই রাজধানীর উত্তরার বাসা থেকে তাকে আটক করেন র‍্যাপিড  অ্যাকশন ব্যাটেলিয়নের (র‍্যাব) সদস্যরা।

এ ঘটনায় ওই বছরের ৫ আগস্ট তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। এ মামলায় চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদকে স্থায়ী জামিন দেন নিম্ন আদালত। এছাড়া গত ৩ সেপ্টেম্বর এ মামলায় আদালত তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। পরে অভিযোগ গঠন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন এই অভিনেত্রী।