• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে কলেজছাত্রীকে নিয়ে পালালেন যুবলীগ নেতা

  • প্রকাশিত ০৭:৪৭ রাত ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
বগুড়া

ফেলে রেখে যাওয়ার ২ দিন পর রবিবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় হাসপাতালে মারা যান ওই নেতার স্ত্রী

বগুড়ার নন্দীগ্রামে অসুস্থ স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে এক কলেজছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি শাহীন আলম।  ।

রবিবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয় বলে নিশ্চিত করেছেন নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবির।

পুলিশ জানায়, এক কলেজছাত্রীর সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে ওঠে শাহীন আলমের। বিষয়টি জানাজানি হলে, এ নিয়ে স্ত্রীর সাথে তার বাগবিতণ্ডা হয়।

এই দাম্পত্য কলহের জেরে গত শুক্রবার দুপুরে বাড়িতে ডিজারজেন্ট পাউডার পানিতে মিশিয়ে পান করেন ওই যুবলীগ নেতার স্ত্রী। এতে তিনি মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন শাহীন আলম। পরে সন্ধ্যার দিকে অসুস্থ স্ত্রীকে হাসপাতালে ফেলে ওই কলেজছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যান তিনি। এর ২ দিন পর হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন তার স্ত্রী। তবে, এখনও ওই কলেজছাত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ রয়েছেন শাহীন আলম। এই কারণে তিনি স্ত্রীর মৃত্যুর ব্যাপারে জানতে পেরেছেন কিনা তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেননি।

ওসি শওকত কবির বলেন, "ঘটনাটি আমরা শুনেছি। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক একটি ঘটনা। শুনেছি শাহীন আলমের দু'টি সন্তানও  রয়েছে। তবে, এ বিষয়ে কেউ থানায় কোনো অভিযোগ কিংবা মামলা দায়ের করেননি। মামলা দায়ের করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।"