• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৮ সকাল

চট্টগ্রামে বিমানযাত্রীদের জন্য ওয়াটার বাস চালু

  • প্রকাশিত ০৯:১১ রাত ডিসেম্বর ৯, ২০১৯
চট্টগ্রাম/ওয়াটার বাস
কর্ণফুলী নদীতে ওয়াটার বাস। ঢাকা ট্রিবিউন

এ সার্ভিসের মাধ্যমে ২৩ মিনিটে পতেঙ্গা টার্মিনাল হয়ে শাহ আমানত বিমানবন্দরে পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে

চট্টগ্রামে বিমানযাত্রীদের সঠিক সময়ে এয়ারপোর্টে পৌঁছে দিতে কর্ণফুলী নদীতে চালু হয়েছে ওয়াটার বাস সার্ভিস। 

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় সদরঘাট টার্মিনাল থেকে একজন যাত্রী নিয়ে বিমানবন্দর যায় দ্রুতগতির আধুনিক এ নৌযানটি।

মূলত বিমানবন্দর সড়কে অসহনীয় যানজটের কথা বিবেচনায় নিয়ে এসএস ট্রেডিং নামে একটি বেসরকারি সংস্থা এ নৌ-সার্ভিস চালু করেছে।

এদিকে, গত কয়েকদিন ধরে নগরীর বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ পরীক্ষামূলকভাবে এ সার্ভিস পরিদর্শন করেছেন। তাদের কেউ কেউ ওয়াটার বাসে ওয়ান-ওয়ে ভাড়া ৪০০ টাকা বেশি মন্তব্য করে এটিকে আরো কমিয়ে আনার প্রস্তাব করেছিলেন। 

এসএস ট্রেডিং-এর কর্ণধার সাব্বাব জানান, আমরা সামগ্রিকভাবে চিন্তা করে প্রথম দিনেই ভাড়া কমিয়ে ৩৫০ টাকা নির্ধারণ করেছি।

জানা গেছে, সোমবার সকাল ৮টায় ও সাড়ে বারোটায় দুই ট্রিপে ২ জন করে যাত্রী ছিলেন। তবে, সাড়ে চারটায় বিমানবন্দর থেকে ১২ জন যাত্রী সদরঘাট আসেন।

উল্লেখ্য, এ সার্ভিসের মাধ্যমে ২৩ মিনিটে পতেঙ্গা টার্মিনাল হয়ে শাহ আমানত বিমানবন্দরে পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে। ২৫ জন যাত্রী ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এ ওয়াটার বাসে রয়েছে লাগেজ রাখার ও ওয়াইফাই সুবিধা। পতেঙ্গা টার্মিনাল থেকে শাটল বাসে যাত্রীদের বিমানবন্দরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। কোনো বিমানযাত্রী সদরঘাট বা পতেঙ্গা টার্মিনালে এসে তাদের মালামাল এসএস ট্রেডিং স্টাফদের বুঝিয়ে দিলে তারা নিজ দায়িত্বে এসব গন্তব্যে পৌঁছে দেবেন।