• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৮ সকাল

স্বামীর নির্যাতনে বাড়ি থেকে পালিয়ে ধর্ষণের শিকার নববধূ

  • প্রকাশিত ০৮:৫৪ রাত ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি।

ওই নারীর এক মাস আগে বিয়ে হয়

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় স্বামীর নির্যাতনে বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর এক নববধূ (১৮) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুরে ওই দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে ৯ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী চৌগাছা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন। গ্রেফতার দুজন হলেন-শহিদ আলী (৩২) ও আব্দুল করিম (৩৫)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, চৌগাছা শহরের বাসিন্দা ওই নারীর এক মাস আগে একই উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও শাশুড়ি তাকে নির্যাতন করতেন। নির্যাতনের একপর্যায়ে ৯ ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে তিনি স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে চৌগাছা-মহেশপুর সড়কের পাশে শহিদ আলীর চায়ের দোকানের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। তখন শহিদ আলী ফুসলিয়ে দোকানের পাশের একটি মেহগনি বাগানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। 

এরপর তাকে দোকানের পাশে থাকা আব্দুল করিমের বাড়িতে রাখা হয়। রাতে করিম তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জোর করে হাত দেন। ওই বাড়িতেই সারারাত থাকতে বাধ্য করা হয় তাকে। পরদিন সকালে বাবার বাড়িতে ফিরে বাবা-মাকে বিস্তারিত জানানোর পর থানায় মামলা করা হয়।

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজীব বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলার আসামিদের আটকের পর ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ওই নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।