• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:২১ দুপুর

টাঙ্গাইলে পৌর মেয়রকে ওসির হুমকি!

  • প্রকাশিত ০৪:৪৩ বিকেল ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুদুল হক মাসুদ
ওসি'র বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র মাসুদুল হক মাসুদ ঢাকা ট্রিবিউন

ওসি তাকে, ‘আগামী নির্বাচনে কিভাবে পৌরসভায় মেয়র নির্বাচিত হন তা দেখে নেব’

ক্ষমতা প্রয়োগ করে পৌরসভার একটি রাস্তা ও ড্রেনের কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম। এমন অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুদুল হক মাসুদ।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে ভূঞাপুর নিজ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করেন মেয়র মাসুদুল হক।  

সেখানে তিনি দাবি করেন, ওসি রাশিদুল ইসলাম তার পুলিশ বাহিনী দিয়ে রাস্তার নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে পৌরসভার উন্নয়নমূলক কাজ। ফলে জনদুর্ভোগ বাড়ছে।

সেখানে মেয়র মাসুদুল হক জানান, ভূঞাপুর বাসস্ট্যান্ড ও ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজ মোড়ে যানজট নিত্যদিনের ঘটনা। বৃষ্টি হলেই সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। এ যানজট ও জলাবদ্ধতা নিরসণে নিয়ম মেনে পৌর এলাকার ফসলান্দি মেধা বিকাশ থেকে ভূঞাপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ হয়ে ঘাটান্দি নতুন পাড়া পর্যন্ত ৪৪০ মিটার লম্বা সরু রাস্তার সম্প্রসারণ এবং ৬৩০ মিটার ড্রেন নির্মাণের টেন্ডার আহ্বান করা হয়। 

টেন্ডারের পর যথারীতি কাজ শুরু করে দেয় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। শেষ করা হয় ৪০০ মিটার রাস্তা ও ড্রেনের কাজ। 

এমন পরিস্থিতিতে নির্মাণাধীন রাস্তাটির পাশের একটি জমির মালিক (ভূঞাপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের দক্ষিণ সংলগ্ন) রাস্তা সম্প্রসারণে আপত্তি জানান। তিনি হাইকোর্টে রাস্তা সম্প্রসারণের বিরুদ্ধে রিট পিটিশন করেন তিনি। উচ্চ আদালত তার রিটটি খারিজ করে দিয়ে নিম্ন আদালতে যাওয়ার জন্য বলেন। সে অনুযায়ী ওই জমির মালিক জেলা জজ আদালতে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মামলা করেন। বর্তমানে মামলাটি শুনানির পর্যায়ে রয়েছে।

মেয়র আরও বলেন, আদালত কাজ বন্ধের কোনো আদেশ দেয়নি। এমতাবস্থায় ঠিকাদার পুনরায় রাস্তার কাজ শুরু করতে গেলে ভূঞাপুর থানার ওসি রাশিদুল ইসলাম অজ্ঞাত কারণে সেখানে গিয়ে বাধা দেন। বিষয়টি শুনে আমি ঘটনাস্থলে গেলে ওসি রাশিদুল সবার সামনে আমাকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করে কথা বলেন। 

মেয়র মাসুদুলের অভিযোগ, ওসি তাকে, ‘‘আগামী নির্বাচনে কিভাবে পৌরসভায় মেয়র নির্বাচিত হন তা দেখে নেব’’ বলে হুমকি দেন। একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তার এমন আচরণে তার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলেও দাবি করেন মেয়র।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম বলেন, রাস্তার নির্মাণকাজের বিষয়ে আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত নিম্ন আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। মামলা চলাকালে রাস্তার কাজ করার সুযোগ নেই। 

হুমকির বিষয়টি অস্বীকার করে ওসি বলেন, জনগণ ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচিত করবেন। ভাল কাজ করলে জনগণ ভোট দেবেন। সেখানে আমার কোনো ভূমিকা নেই।