• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৬ সকাল

বিয়ের আগে মেয়ে পালিয়ে যাওয়ায় মায়ের আত্মহত্যা

  • প্রকাশিত ০৫:৪১ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
আত্মহত্যা
প্রতীকী ছবি।

বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি

যশোরে বিয়ের আগের দিন বাড়ি থেকে কনে পালিয়ে যাওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন তার মা। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে ইউএনবি'র একটি খবরে বলা হয়।

নিহত হালিমা বেগম (৩৪) মালয়েশিয়া প্রবাসী হোসেন আলীর স্ত্রী। তার ৩ সন্তান রয়েছে।

জানা যায়, যশোরের মণিরামপুর উপজেলার দীঘিরপাড় গ্রামের প্রবাসী হোসেন আলীর বাড়িতে হালিমা বেগমের বড় মেয়ের বিয়ের আয়োজন চলছিল। শুক্রবার বিয়ের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার বিকালে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান হালিমার বড় মেয়ে। এই ঘটনায় বিষপানে আত্মহত্যা করেন তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মাহাবুর রহমান  জানান, এর আগে হালিমা বেগমের বড় মেয়ের অন্য এক জায়গায় বিয়ে হয়েছিল। সেখানে বনিবনা না হওয়ায় কয়েকমাস আগে তালাক হয় তার। এর পর শুক্রবার আবার মেয়ের বিয়ে ঠিক করেন হালিমার স্বামী হোসেন আলী। কিন্তু বৃহস্পতিবার আগের স্বামীর কাছে ফিরে যেতে ইচ্ছা পোষণ করে বিয়েতে অমত দেন হালিমা বেগমের বড় মেয়ে। এ নিয়ে মেয়ের সাথে বাগবিতণ্ডা হয় তার। পরে মেয়ে পালিয়ে যাওয়ায় আত্মহত্যা করেন তিনি।

তবে, এই ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ কিংবা মামলা দায়ের করা হয়নি বলেও জানান তিনি।