• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৫:৫৯ সন্ধ্যা

৪৪টি কচ্ছপসহ ২ পাচারকারী গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ১০:৩১ রাত ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
গ্রেফতার-কচ্ছপ
খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার হাজীডাঙ্গা এলাকা থেকে ৪৪টি বন্য কচ্ছপসহ ২ পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৬। ঢাকা ট্রিবিউন

দীর্ঘদিন ধরেই সুন্দরবনে ফাঁদ পেতে বন্যপ্রাণী ধরে বিক্রি করে আসছিলেন আসামিরা

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার হাজীডাঙ্গা এলাকা থেকে ৪৪টি বন্য কচ্ছপসহ ২ পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৬। শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকাল ৪টা ৫০ মিনিটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব-৬ এর স্পেশাল কোম্পানি কমান্ডার (এএসপি) মো. তোফাজ্জল হোসেন।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মেজর এ এম আশরাফুল ইসলাম নেতৃত্বে উৎপল জোয়ার্দার নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে অভিযান চালায় র‍্যাব-৬ এর একটি দল। এসময় র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কয়েকজন পালিয়ে গেলেও দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার ২ ব্যক্তি হলেন - উপজেলার মাগুরখালী গ্রামের মৃত পবন গোলদারের ছেলে কৃষ্ণপদ গোলদার (৫৫) ও আমুর বুনিয়া গ্রামের ফনিভূষণ রায়ের ছেলে সুজন রায় (৩৩)। এসময় তাদের কাছে থাকা একটি বস্তার ভেতর থেকে ৪৪ টি কচ্ছপ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও অভিযানে ৩টি মোবাইল ফোন, ৫টি সিম কার্ড, ২টি মেমোরি কার্ড ও নগদ দুই হাজার পাঁচশ' টাকা জব্দ করা হয়।

আসামিদের  বিরুদ্ধে ডুমুরিয়া থানায় ১৯২৭ সনের বন আইন ও বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন-২০১২ অনুসারে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

ঢাকা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, "আসামিরা দীর্ঘদিন ধরেই সুন্দরবনে ফাঁদ পেতে বন্যপ্রাণী ধরে বিক্রি করে আসছে। আমরা দীর্ঘদিন তাদের অনুসরণ করে অবশেষে ধরতে পেরেছি। গ্রেফতার দুই আসামি জীবিত কচ্ছপ পাচারকারী দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানতে পেরেছি। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।"