• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৩ রাত

কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ড: চিকিৎসাধীন আরও একজনের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ০৩:১০ বিকেল ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯
মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী।

এ নিয়ে কেরানীগঞ্জের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২১ জনে দাঁড়ালো

ঢাকার কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক সামগ্রী তৈরির কারখানায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটের আইসিইউতে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে কেরানীগঞ্জের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২১ জনে দাঁড়ালো।

বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. পার্থ শঙ্কর পাল এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ এখন মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহত মফিজুল ইসলামের (৪৫) বাড়ি কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানার সোনাকান্দা গ্রামে। কর্মসূত্রে তিনি আরমানিটোলায় একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন।

এর আগে গত ১১ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের হিজলতলা এলাকায় প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড কারখানায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়।

অগ্নিকাণ্ডে একজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। গুরুতর দগ্ধ হয়ে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয় ৩০ জনকে। এদের মধ্যে ২১ জন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। বাকি যারা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন তাদের সবার অবস্থাই আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন ঢামেক বার্ণ ইউনিট ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. সামন্ত লাল সেন।