• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২১ রাত

বুড়িমারী সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে আটক ৩ ভারতীয়

  • প্রকাশিত ০৯:১৭ রাত ডিসেম্বর ২১, ২০১৯
সীমান্ত
বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত । ঢাকা ট্রিবিউন

শনিবার বিকালে সাড়ে ৫টার দিকে মোটরসাইকেলে করে বাংলাদেশে ঢুকে পড়েন ৩ ভারতীয় যুবক

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর সীমান্ত পথে তিন ভারতীয় যুবক মোটরসাইকেল যোগে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ায় বিজিবি’র হাতে আটক হয়েছেন। শনিবার (২১ ডিসেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বুড়িমারী-চ্যাংড়াবান্ধা স্থলবন্দর রুটের “জিরো পয়েন্ট” চেকপোস্টে  টহলরত বিজিবি সদস্যরা তাদের আটক করেন বলে নিশ্চিত করেন রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মোজাম্মেল হক।

আটক ভারতীয় নাগরিকরা হলেন-পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জলপাইগুড়ি আলিপুর ফালাকাটা (বাদাইটারী) এলাকার প্রদীপ ঘোষের ছেলে তাপস ঘোষ (২৩), একই এলাকার ইদ্রিস আলীর ছেলে বুলু মিয়া (২২) ও মোজাম্মেল হকের ছেলে রবিউল ইসলাম (২৫)। এই তিন বন্ধু মোটরসাইকেল যোগে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা স্থলবন্দর বেড়াতে এসেছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ভারতীয় যুবকরা জানিয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছে বিজিবি।

বুড়িমারী বিজিবি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার আবুল হোসেন ঢাকা ট্রিবিউন’কে এপ্রসঙ্গে বলেন, "লালমনিরহাটের বুড়িমারী ও ভারতের কোচবিহার জেলার চ্যাংড়াবান্ধা স্থলবন্দর আন্তর্জাতিক মহাসড়কের জিরো পয়েন্ট দিয়ে ওই তিন ভারতীয় নাগরিক বাংলাদেশের সীমান্তে ঢুকে পড়ে। এসময় ভারত-বাংলাদেশের পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল করছিল। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে চ্যাংড়াবান্ধা বিএসএফ-এর কোম্পানি কমান্ডার ইন্সপেক্টর শ্রী আরপালের সাথে আমার পতাকা বৈঠকের কথা রয়েছে। পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে আটক তিন যুবককে ফেরত দেওয়া হবে।" 

রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মোজাম্মেল হক বলেন, "এই ঘটনায় কোম্পানি কমান্ডার লেভেলে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিএসএফ’র নিকট তিন ভারতীয় নাগরিককে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে। ভবিষ্যতে এমন ঘটনা আর ঘটবে না বলে বিএসএফের ব্যাটালিয়ন পরিচালক আমাকে আশ্বস্ত করেছেন।"